× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

আজব বাড়ির কাণ্ড

রকমারি

নিজস্ব সংবাদদাতা
১০ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার
সর্বশেষ আপডেট: ২:৩৫ অপরাহ্ন

আজব বাড়িতে আজব কাণ্ড! দুনিয়ার সবচেয়ে ক্ষুদ্র এয়ার বেড অ্যান্ড ব্রেকফাস্ট Airbnb-এ ২৪ ঘণ্টা কাটিয়ে নজির গড়ল ইউটিউবার রেয়ান ট্রাহান। মাত্র ২৫ স্কোয়ারফুটের এই ছোট্ট Airbnb-এ গোটা দিন ফেললেন কাটালেন তিনি। বোস্টনের হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘হাউস অন হুইল’টি ডিজাইন করেছেন ভাস্কর জেফ স্মিথ। এখানেই ২৪ ঘণ্টা কাটান এই ইউটিউবার। বিশ্বের ক্ষুদ্রতম বাড়িতে ২৪ ঘণ্টা কাটানোর পর নিজের ইউটিউব চ্যানেলে সেই অভিজ্ঞতা সকলের সঙ্গে ভাগ করে নেন রেয়ান ট্রাহান। ওই ভিডিওতে তিনি বলেন, ‘‘আমি বিশ্বাস করতে পারছি না যে টানা ২৪ ঘণ্টা বিশ্বের ক্ষুদ্রতম বাড়িতে আমি কাটিয়ে ফেলেছি। এক কথায় এই অভিজ্ঞতা অসাধারণ!’’ ভিডিওর শুরুতেই এই ক্ষুদ্র বাড়িটির আকারগত বর্ণনা দিয়েছেন রেয়ান। তার কথায় এটি একটি শপিং কার্ট বা রেফ্রিজারেটরের সমান হবে।
এই বর্ণনা দিতে গিয়ে তার কথায় উঠে এসেছে প্রাক্তন মার্কিন কুস্তিগীর এবং অভিনেতা ড্যনি ‘দ্যা রক’ জনসনের নাম। যাঁর উচ্চতা কিনা ৬ ফুট ৫ ইঞ্চি। রেয়ানের কথায়, ‘‘আমার জায়গায় ড্যনি হলে এই বাড়িতে আটতেন না।’’ এই চ্যালেঞ্জ শুরু হওয়ার আগে জেফ স্মিথের সঙ্গে দেখা করেছিলেন রেয়ান। এই ছোট্ট সবুজ বাড়িটিতে কী ভাবে থাকতে হবে সেই বিষয়ে যাবতীয় খুঁটিনাটি তাঁকে বুঝিয়ে দিয়েছিলেন জেফ। ছোট হলেও এই বাড়িতে রয়েছে ছোট্ট ছোট্ট জানালা। রয়েছে স্টোভ, বেসিন। এখানে বসেই নিজের জন্য পিৎজাও অর্ডার করেন রেয়ান। যা বেশ উপভোগ করেই খান তিনি। এই ২৪ ঘণ্টা একেবারে নিঃসঙ্গতায় কাটাননি রেয়ানের। তার সঙ্গে দেখা করতে এসেছিলেন তার বন্ধুরা। এসেছিলেন এলাকার কচিকাচারাও। সর্বোপরি তার বাড়ি দেখে হাজির হয়েছিল পুলিশও। এই ছোট্ট বাড়ির ভিতরে রেয়ান কী করছেন? একথা জানতে চাইলে রেয়ান বলেন, গোটা একটা দিন এর মধ্যেই কাটাবেন তিনি। একথা শোনার পরই পুলিশ সেখান থেকে সরে যেতে বলে রেয়ানকে। অবশেষে তাঁকে সাহায্য করতে পৌঁছায় জেফ এবং দুই অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি এমিলি এবং অ্যালিনা। তারাই এই বাড়িটিকে গড়াতে গড়াতে প্রায় ১৬০০ মিটার দূরে নিয়ে যায়। অবশেষে রেয়ানের রাত কাটে শান্তির ঘুমে। সকাল হতেই তাঁকে স্বাগত জানায় জেফ ও তার বন্ধুরা। রেয়ানের এই ভিডিও এখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
সুষমা
১০ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ৩:৪৩

সত্যি মানুষের শখ বলে কথা ! সেই শখ মেটাতে আজব সব কান্ড কারখানা ! সত্যিই বড় অদ্ভূত !

অন্যান্য খবর