× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২২ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

ম্যাডোনা-বয়ফ্রেন্ড মাখামাখি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ সপ্তাহ আগে) জানুয়ারি ১২, ২০২১, মঙ্গলবার, ১:০৫ অপরাহ্ন

জীবনকে যেমন খুশি ভোগ করছেন ‘কুইন অব পপ’ , ম্যাটেরিয়াল গার্লখ্যাত ম্যাডোনা (৬২)। তার জীবনসুধা পান করেছেন অনেক পুরুষ। এখন তার শিকার মাত্র ২৬ বছর বয়সী বয়ফ্রেন্ড আহলামালিক উইলিয়ামস। স্বামী-স্ত্রীর জীবন যেমন কাটে, তার চেয়েও রোমান্টিক সময় কাটছে তাদের। টয়বয় আহলামালিককে বগলদাবা করে তিনি নিয়ে যান যেখানে খুশি সেখানে। কোনো বাদ, বিচার নেই। কোন লজ্জা শরম বলতেও কিছু নেই। বরং তিনি এমন একজন যুবককে শিকারে পরিণত করতে পারায় গর্ব করেন।
তিনি গর্ব করেন এ জন্য যে, এখনও ৬২ বছর বয়সে তার রূপসুধার টানে মৌমাছির মতো উড়ে বেড়ায়, ঘুরে বেড়ায় অসংখ্য পুরুষ, যুবক। সেই বয়ফ্রেন্ড আর ম্যাডোনার ৫ সন্তানকে সঙ্গে নিয়ে শীতকালীন এক বিলাসী ট্রিপ দিলেন তিনি।

মাত্র তিন সপ্তাহে সফর করলেন ৫টি দেশ। তবে করোনা ভাইরাসের বিধিনিষেধের প্রতি তোয়াক্কা করেন নি। করোনা সংক্রমণে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্ত্বেও তিনি এ সময়ে উড়েছেন ১১ হাজার ৭০৭ মাইল পথ। কুইন অব পপ যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যানজেলেস থেকে উড়ে গিয়েছেন লন্ডনে। সেখান থেকে মালাবি। মালাবি থেকে কেনিয়া। এ সময়ে আমেরিকান ব্যাকিং ড্যান্সার আহলামালিক উইলিমাস প্রতিটি সময় ছিলেন তার সঙ্গে। বড় দিন উপলক্ষে তার সঙ্গে ছিল দত্তক নেয়া চার সন্তান। তারা হলো ডেভিড ব্যান্ডা (১৫), মার্সি জেমস (১৪), যমজ ইস্টারে এবং স্টেলা (৮)। তাদেরকে লন্ডনে স্বাগত জানায় ম্যাডোনার ২০ বছর বয়সী বড়ছেলে রোকো।


বৃটিশ পরিচালক গাই রিচির সঙ্গে এক সময় বিয়ে হয়েছিল ম্যাডোনার। তার ঔরসে ম্যাডোনা জন্ম দিয়েছেন একমাত্র ছেলে রোকো’কে। লন্ডন থেকে ম্যাডোনা টিমের সঙ্গে যোগ দেয় রোকো। ২৮ শে ডিসেম্বর এই দলটি আফ্রিকার দেশ মালাবির দিকে উড়া শুরু করে। একবার মিশরে যাত্রাবিরতি দিয়েছেন। ধারনা করা হয়েছে ম্যাডোনার ব্যক্তিগত ফটোগ্রাফার রিকার্ডো গোমেজ তাদের সঙ্গে গিয়েছিলেন। তারা মালাবিতে এক সপ্তাহ অবস্থান করেন। এ সময় প্রেসিডেন্ট ল্যাজারাস চাকবিরা, স্থানীয় বিভিন্ন জনগোষ্ঠীর সঙ্গে সাক্ষাত করেন ম্যাডোনা।

সফর করেন একটি হাসপাতাল। এই হাসপাতাল প্রতিষ্ঠা করেছেন ম্যাডোনা নিজে। বুধবার তারা উড়ে যান কেনিয়াতে। সেখানে একটি সাফারি পরিদর্শন করেন। পশ্চিম কেনিয়াতে পোকোট উপজাতির সঙ্গে মিশে যান ম্যাডোনা ও তার বয়ফ্রেন্ড উইলিয়ামস। ঘনিষ্ঠ সূত্রগুলো বলেছেন, এ সময়ে গ্রুপের সবার নিয়মিত করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করা হয়েছে। ম্যাডোনার ব্যক্তিগত সম্পদের পরিমাণ ৬৩ কোটি পাউন্ড। ধারণা করা হচ্ছে এই সফরে তিনি ব্যক্তিগত জেট নিয়ে গিয়েছিলেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর