× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

পরিবেশ অধিদপ্তরের নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও চলছে টিএসবি ব্রিকসের কার্যক্রম

বাংলারজমিন

হালুয়াঘাট (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি
১৬ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার

পরিবেশ অধিদপ্তরের নিষেধাজ্ঞা আর কোনো প্রকার নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে বীরদর্পে চালিয়ে যাচ্ছে ময়মনসিংহের হালুয়াঘাট উপজেলার মমিনপুর গ্রামের টিএসবি নামে একটি অবৈধ ইটভাটার কার্যক্রম। সম্প্রতি স্থানীয়দের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ভাটাটি বন্ধ করে অবৈধ স্থাপনা অন্যত্র সরিয়ে নিতে এক আদেশ জারি করলেও অদৃশ্য কারণে রয়েছে তা চলমান। শুধু টিএসবি ভাটা নয়, পাশাপাশি উপজেলায় নানা অনিয়মের মধ্য দিয়ে চলছে মোট ১৬টি ইটভাটা। সরজমিনে ঘুরে মেলে  অবৈধ ইটভাটা নিয়ে নানা তথ্য। গত ১৩ই ডিসেম্বর ময়মনসিংহ পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক মিহির লাল সরদার স্বাক্ষরিত একটি নিষেধাজ্ঞা জারি হয় টিএসবি ব্রিকস ফিল্ডের উপর। চিঠির আদেশে বলা হয়, ভাটা থেকে ৮শ’ মিটার দূরত্বে পাবিয়াজুড়ি স্কুল এন্ড কলেজ অবস্থিত। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ছাড়াও সন্নিকটে রয়েছে আরো বেশকিছু সামাজিক প্রতিষ্ঠান। ভাটাটির মঞ্জুরি পেতে যেসকল শর্ত মানতে হয় তা টিএসবি ব্রিকসের নেই।
সে কারণে ভাটার সকল স্থাপনা অন্যত্র সরিয়ে নিতে নির্দেশ প্রদান করে পরিবেশ অধিদপ্তর। গত ৩১শে ডিসেম্বর জেলা প্রশাসক ও হালুয়াঘাট উপজেলা ভূমি কর্মকর্তা বরাবরে স্থানীয় ৭৩ জনের স্বাক্ষরিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে জানা যায়, ইটভাটাটি ফসলি জমির উপর অবস্থিত। আবাদি জমির মাটি দিয়ে ইট তৈরি হয় ভাটায়। তাতে এলাকার ফসলি জমি বিনষ্ট হচ্ছে। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে বিরাজ করছে চরম ক্ষোভ। এদিকে ইটভাটার মালিক সফিকুল ইসলাম লিটন বলেন, একটি মহল নিজেদের স্বার্থ হাসিলের জন্যে ভাটার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন যা আদৌ সত্য নয়। তাদের দাবি- যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করেই পরিচালনা করে যাচ্ছে ভাটার কার্যক্রম। হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. রেজাউল করিম বলেন, অবৈধ ইটভাটাগুলোতে প্রয়োজনে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে। এদিকে ভাটাটির সকল স্থাপনা সরিয়ে নিতে আইনগত ব্যবস্থার নেয়া হবে বলে জানালেন ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক (উপ-সচিব) ফরিদ আহমেদ। তিনি বলেন, আমরা টিএসবি ভাটার উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছি। তা না মানলে খুব শিগগিরই ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর