× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

বৃহস্পতির চাঁদ গ্যানিমেডে এলিয়েনের অস্তিত্ব, গুঞ্জন, এবং...

অনলাইন

নিজস্ব প্রতিনিধি
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ১৬, ২০২১, শনিবার, ৩:০০ অপরাহ্ন

নানা গুঞ্জন, জল্পনা। তবে কি বৃহস্পতির চাঁদ গ্যানিমেডে অস্তিত্ব আছে এলিয়েনের! গ্যানিমেডে অনুভূত  রেডিও সিগনাল সম্প্রতি চিহ্নিত করে নাসার একটি স্পেসক্রাফ্ট।  রেডিও  তরঙ্গ বা এফএম সিগন্যাল সাধারণত কোনও জীব থাকার ইঙ্গিত দেয়। বৃহস্পতিবার চাঁদে এই ধরনের সিগনাল চিহ্নিত হওয়ার পর পরই শুরু হয় নানা আলোচনা। তবে গুজবের ডাল-পালা বেশি দূর গজাতে পারেনি। এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, মহাকাশ বিজ্ঞানীরা এর সমাধান দিয়েছেন। তাদের কথায়, কোনো এলিয়েনের  অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। বৃহস্পতির কোনও প্রাকৃতিক প্রক্রিয়ার জেরেই এই রেডিও তরঙ্গের উৎপত্তি এমনটাই জানিয়েছেন তারা।
নাসার তরফে বলা হয়েছে, JUNO নামের এক স্পেসক্রাফ্টে ধরা পড়েছে এই এফএম রেডিও সিগনাল।
বৃহস্পতির কক্ষপথ ধরেই প্রদক্ষিণ করছিল মহাকাশযানটি। এমন সময়ে বৃহস্পতির চাঁদ গ্যানিমেড থেকে তরঙ্গের বিষয়টি অনুধাবন করা যায়। এই চাঁদ থেকে এই ধরনের তরঙ্গ আগে কখনো চিহ্নিত হয়নি। বৃহস্পতির ৭৯টি চাঁদের মধ্যে অন্যতম  হল গ্যানিমেড। মহাকাশ-বিজ্ঞানীদের কথায়, মূলত ইলেকট্রন থেকে এই ধরনের তরঙ্গ বা সিগনাল সৃষ্টি হয়। এই গ্রহে হয়তো কোনও প্রাকৃতিক পরিবর্তন হয়েছে। আর এর জেরেই এমন তরঙ্গের সৃষ্টি হয়ে থাকতে পারে।  সাইক্লোট্রন ম্যাসার ইনস্ট্যাবিলিটি নামে এক প্রক্রিয়ার প্রসঙ্গ উঠে এসেছে আলোচনায়। সাধারণত কোনও তড়িৎ-চুম্বকীয় ক্ষেত্রে ঘটে থাকে এই ধরনের প্রক্রিয়া। এর জেরে ইলেকট্রনের উপস্থিতিও লক্ষ্য করা যায়। আর আশপাশের এলাকায় একটি ফ্রিকোয়েন্সি অনুভূত হয়। প্রসঙ্গত, ২০১১ সালে মহাকাশে juno পাঠিয়েছিল নাসা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর