× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

কাকরাইলে চাঞ্চল্যকর মা-ছেলে হত্যা : স্বামীসহ ৩ জনের মৃত্যুদণ্ড

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ১৭, ২০২১, রবিবার, ১০:৫৯ পূর্বাহ্ন

রাজধানীর কাকরাইলে চাঞ্চল্যকর মা ও ছেলেকে হত্যা মামলায় নিহত শামসুন্নাহারের স্বামী আবদুল করিমসহ তিনজনের মৃত্যুদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। দণ্ডপ্রাপ্ত অন্যরা হচ্ছে, করিমের দ্বিতীয় স্ত্রী  মডেল শারমিন মুক্তা ও তার ভাই আল-আমিন জনি। আজ দুপুরে ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ রবিউল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেন।
গত ১০ই জানুয়ারি এ মামলায় রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হয়। ওই দিনই আদালত রায়ের জন্য ১৭ই জানুয়ারি দিন ধার্য করেন। ২০১৭ সালের ১লা নভেম্বর কাকরাইলের নিজ বাসায় হত্যা করা হয় গৃহবধূ শামসুন্নাহার করিম (৪৬) ও তার ছেলে  ও লেভেলের শিক্ষার্থী শাওনকে (১৯)। উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের বিপরীত দিকে গলির ৭৯/১ নম্বর বাসায় এ ঘটনা ঘটে।
ঘটনার পরদিন শামসুন্নাহারের ভাই আশরাফ আলী বাদী হয়ে রমনা থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় শামসুন্নাহারের স্বামী আবদুল করিম, করিমের দ্বিতীয় স্ত্রী মডেল শারমিন মুক্তা, মুক্তার ভাই মো. আল আমিন জনিসহ অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজনকে আসামি করা হয়।

২০১৮ সালের ১৬ই জুলাই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রমনা থানার পরিদর্শক মো. আলী হোসেন আদালতে এ মামলার চার্জশিট দাখিল করেন। চার্জশিটে ওই তিন জনকে অভিযুক্ত করা হয়। মামলায় গ্রেপ্তার হয়ে ওই তিন আসামিই আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এর পর ২০১৯ সালের ৩১শে জানুয়ারি অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে তিন আসামির বিচার শুরুর আদেশ দেয় ঢাকার তৃতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আদালত।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর