× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

রংপুরে তামাক চাষিদের মানববন্ধন

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ১৭, ২০২১, রবিবার, ৮:১৬ অপরাহ্ন

রংপুরে বিভিন্ন দাবিতে তামাক চাষিরা মানববন্ধন করেছেন। রোববার সকালে রংপুর প্রেস ক্লাবে তারা দেশীয় মালিকানাধীন কোম্পানির জন্য নীতিমালা প্রণয়ন করে ব্যবসা করার সুযোগ ও চাষিদের তামাক উৎপাদনের সুযোগ করে দেয়ার দাবিতে এ মানববন্ধন করেছেন। মানববন্ধনে বিভিন্ন স্থানের তামাক চাষিরা উপস্থিত ছিলেন।
মানববন্ধনে চাষিরা বলেন, আমরা তামাক চাষ করতে পারি না। কেননা, তামাক চাষ করার পর সেটি বিক্রি করা যায় না। দেশে বর্তমানে শুধুমাত্র দু’টি বিদেশি কোম্পানি ও কয়েকটি দেশীয় কোম্পানি তামাক ক্রয় করে। কিন্তু ১০ বছর আগে আমরা প্রায় ২৫ থেকে ৩০টি শতভাগ দেশীয় মালিকানাধীন কোম্পানির কাছে ন্যায্যমূল্যে তামাক বিক্রি করতাম। দেশীয় মালিকানাধীন কোম্পানি নি¤œমানের সিগারেট বানাতো এবং আমরা তাদের জন্য তামাক উৎপাদন করে দিতাম।  বিদেশি সিগারেট কোম্পানি শুধুমাত্র উচ্চমানের সিগারেট বানাতো, তাই আমাদের তামাকপাতা দেশীয় কোম্পানির কাছে বিক্রি করতাম।
কিন্তু এখন আমরা জানতে পেরেছি একটি বিদেশি মালিকানাধীন কোম্পানি নি¤œমানের সিগারেট উৎপাদন করে পুরো বাজার দখল করে নিয়েছে। তাদের সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে শতভাগ দেশীয় মালিকানাধীন কোম্পানিগুলো পেরে উঠছে না। বাজার হারিয়ে দেশীয় মালিকানাধীন কোম্পানিগুলো নিঃস্ব হয়ে গেছে। বর্তমানে ৩০টি শতভাগ মালিকানাধীন কোম্পানির মধ্যে ২৫টি কারখানা কোনোমতে চলছে। তারা আমাদের কাছ থেকে তামাক নেয় না।
প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে চাষিরা বলেন, খোঁজ নিলে জানতে পারবেন দেশে আগে কি পরিমাণ তামাক উৎপাদন ও বিক্রয় হয়েছে আর এখন কতটুকু হচ্ছে। এই তামাক কারা নিচ্ছে, কেন অন্য কোম্পানি নিচ্ছে না তা অনুগ্রহ করে খতিয়ে দেখবেন। আমরা আপনার কাছে দাবি রাখতে চাই, ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের বাজেটে সংসদে বিল পাস হয়েছিল শতভাগ মালিকানাধীন  কোম্পানির জন্য আলাদা নীতিমালা করা হবে। যাতে তারা উৎপাদনে ফিরে আসতে পারে এবং ব্যবসা করতে পারে। সিগারেট উৎপাদন করে ব্যবসা করে বাজার ফিরে পেলে তারা আমাদের উৎপাদিত তামাক কিনবে। কিন্তু সংসদে যে নীতিমালা অনুমোদন হয়েছিল সেটি এখনো বাস্তবায়ন হয়নি।  
মানববন্ধনে আরো বলা হয়, দেশে শুধুমাত্র একটি বিদেশি কোম্পানি থাকবে নাকি ৩০টি দেশীয় কোম্পানি থাকবে সেটি বিবেচনার দায়িত্ব সরকারের। দেশীয় কোম্পানিগুলো যদি ব্যবসা করতে পারে তবে দেশের অনেক বেকারত্ব দূর হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর