× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার

কেন্দুয়ায় প্রধান শিক্ষককে কুপিয়ে হত্যাচেষ্টা

বাংলারজমিন

কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি
১৯ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার

নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলার নোয়াদিয়া একতা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদিরকে নির্মমভাবে কুপিয়েছে প্রতিপক্ষ মুখলেছ মিয়া গং। পুকুরে সেচ দেয়াকে কেন্দ্র করে গত শনিবার স্কুলে যাওয়ার পথে এই নির্মমতার শিকার হন আব্দুল কাদির। এ ঘটনায় আহত প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী জাফরিন খন্দকার বাদী হয়ে মুখলেছ মিয়াকে প্রধান আসামি করে ৮ জনের বিরুদ্ধে কেন্দুয়া থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার ৩ দিন অতিবাহিত হলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি। মামলার এজহার সূত্রে জানা গেছে, ঘটনার আগেরদিন পুকুরে সেচ দেয়াকে কেন্দ্র করে প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদিরের সঙ্গে প্রতিপক্ষ মুখলেছ মিয়া গংয়ের সঙ্গে কথার কাটাকাটি হয়। এরপর প্রতিপক্ষরা তাকে খুন করার পরিকল্পনা করে। পরদিন ১৬ই জানুয়ারি সকাল ৮টার দিকে স্কুলে যাওয়ার সময় পথরোধ করে বেধরক কুপিয়ে জখম করে। এতে তার কপাল কেটে যায়, বাম হাত ভাঙাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে মারাত্মক জখম হয়।
পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে নেত্রকোনা আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে তিনি ওই হাসপাতালেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ সময় হামলাকারীরা আব্দুল কাদিরের পকেটে থাকা ২৫ হাজার টাকা ও একটি সোনার আংটি ছিনিয়ে নিয়ে গেছে বলে এজহারে উল্লেখ করা হয়েছে। মামলার বাদী জাফরিন খন্দকার বলেন, আসামিরা হুমকি দিয়ে বলছে মামলা তুলে না নিলে আমাদেরকে মেরে ফেলা হবে।
আসামিরা খুবই প্রভাবশালী তাদের এমন হুমকিতে আমরা খুবই আতঙ্কে দিনযাপন করছি। এ ব্যাপারে কেন্দুয়া থানার ওসি কাজী শাহ নেওয়াজ জানান, আসামিদের ধরতে এলাকায় অভিযান চালানো হচ্ছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর