× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

মৌলভীবাজারে আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথনে ১৭ দেশের রানারসহ ৭ শতাধিক রানার অংশ নিচ্ছেন

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে
২০ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের শমশের নগরে ২০শে জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হচ্ছে প্রথম আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথন। এ ম্যারাথনে অংশ নিচ্ছে ১৭টি দেশের ৩০ জন রানারসহ ৭ শতাধিক রানার। বিটিআরএ (বাংলাদেশ ট্রেইল রানিং এসোসিয়েশন) এর সদস্য শমশের নগর রানার্স কমিউনিটি (এসএনআরসি)-র আয়োজনে এ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হবে। গতকাল ১৯শে জানুয়ারি শমশের নগর আরপি টাওয়ারে অনুষ্ঠিত মিট দ্যা প্রেস-এ আয়োজকরা এ তথ্য জানান। শমশের নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো. জুয়েল আহমেদের সভাপতিত্বে মিট দ্যা প্রেসে লিখিত তথ্য উপস্থাপন করেন শমশের নগর আলট্রা ট্রেইল ম্যারাথন-২০২১ কমিটির সদস্য সচিব নবিল শমশেরী। তিনি জানান, ২৯শে জানুয়ারি মোট ৩টি ধাপে যথাক্রমে ১০ কি.মি, ২১.১ কি.মি. ও ৫০ কি.মি. দূরত্বের প্রথম আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হবে। ২৯শে জানুয়ারি ভোর ৫টায় অংশ গ্রহণকারী রানাররা শমশের নগর চা বাগান ফুটবল মাঠে এসে রিপোর্ট করবেন। ভোর সাড়ে ৫টায় প্রথমে শুরু হবে ৫০ কি.মি দূরত্বের রানিং।
ভোর ৬টায় শুরু হবে ২১ দশমিক ১ কি.মি. দূরত্বের রানিং। ভোর সাড়ে ৬টায় সব শেষে শুরু হবে ১০ কি.মি. দূরত্বের রানিং। রানাররা ট্রেইল রান করে আবার শমশের নগর চা বাগান মাঠে শেষ করবে। বিকাল ৩টায় অনুষ্ঠিত হবে সমাপনী অনুষ্ঠান ও পুরস্কার বিতরণী। আয়েজক কমিটির সদস্য সচিব নবিল শমশেরী বলেন, প্রথমবারের মতো অনুষ্ঠিত ট্রেইল ম্যারাথনে ভারত, শ্রীলঙ্কা, ভুটান, জার্মানিসহ ১৭টি দেশের ৩০ জনসহ ৭ বাংলা দেশের নারী-পুরুষ সমন্বয়ে ৭ শতাধিক রানার ইতিমধ্যেই নিবন্ধন সম্পন্ন করেছেন। বাংলাদেশের পতাকা বহনকারী যারা ইতিমধ্যে বিদেশে বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছেন এমন বেশ কয়েকজন রানারও এ আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথনে অংশ নিচ্ছেন। দেশি-বিদেশি রানারদের অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিতব্য আল্ট্রা ট্রেইল ম্যারাথনে অংশগ্রহণকারীদের নিরাপত্তা, স্বাস্থ্য সেবা দেখাশোনা সার্বিক বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, স্থানীয় এলাকাবাসী, স্থানীয় প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের সার্বিক সহযোগিতায় এ ম্যারাথন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। ইতিমধ্যেই অংশগ্রহণকারী রানাররা স্থানীয় রিসোর্ট, গেস্ট হাউজসমূহ ও শ্রীমঙ্গলের অনেক রিসোর্ট ও গেস্ট হাউজ ২৮ ও ২৯শে জানুয়ারির জন্য আগাম বুকিং করে নিয়েছেন। চা বাগান ও পাহাড়বেষ্টিত এলাকায় অনুষ্ঠিত এ আয়োজনের মাধ্যমে শমশের নগরের ইতিহাস, ঐতিহ্য ও দর্শনীয় স্থান বাংলাদেশ তথা বিশ্বের মাঝে তুলে ধরা তাদের লক্ষ্য।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর