× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৫ মার্চ ২০২১, শুক্রবার

নিয়ামতপুরে অসহায় বৃদ্ধার বাড়ি দখল, লুটপাট

বাংলারজমিন

নওগাঁ প্রতিনিধি
২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

পূর্বশত্রুতার জেরে নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের দামপুরা রাজবংশীপাড়ার সেতারা খাতুন (৫০) নামে এক বৃদ্ধার বাড়িতে দিনেদুপুর ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীদের দিয়ে ভাঙচুর, লুটপাট করে জায়গা দখল করে নেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত মঙ্গলবার দুপুরে এই হামলা, ভাঙচুর, লুটপাট ও দখলের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় নিয়ামতপুর থানায় গতকাল একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন বৃদ্ধা সেতারা খাতুন।
ভুক্তভোগী বৃদ্ধা সেতারা জানান, পূর্বশত্রুতার জেরে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তার বাড়িতে একই গ্রামের কবির হোসেন টানুর ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩৬), আলমগীর হোসেন (৩২), কবির হোসেন টানুর স্ত্রী জুমারার (৫০) নেতৃত্বে ৪-৫ জন অজ্ঞাতনামা ভাড়াটিয়া সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। হামলাকারীরা বাড়ি ভেঙে ঘরের মধ্যে থাকা ৫০ মণ ধান, ২০ মণ চাল ও নগদ দেড় লাখ টাকা লুট করে বাড়ির থেকে বৃদ্ধাকে জোরপূর্বক বের করে বাড়ির জায়গা দখল করে নেয়। বৃদ্ধা আরো অভিযোগ করেন, জাহাঙ্গীর আলমগীর গংরা আমাকে একা পেয়ে হত্যার হুমকি দেয়।
অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি আমার জায়গা দখল করেছি। কারো ঘর ভাঙচুর করিনি বা লুটপাট করিনি। তারা নিজেরাই ঘর ভেঙে আমার ওপর দোষ চাপিয়ে দিচ্ছে।
গ্রামবাসী বনি ইসরাইল  জানান, বৃদ্ধা সেতারার স্বামী এসলাম কাজের জন্য ঢাকায় থাকে।
বৃদ্ধা একাই ওই বাড়ীতে দীর্ঘ ১০-১২ বছর যাবত বসবাস করে আসছিল। বাড়ির জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ দ্বন্দ্ব চলছিল জাহাঙ্গীর আলমের সঙ্গে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান, মেম্বাররা একাধিকবার সমাধানের চেষ্টা করেও কোনো সমাধান করতে পারেননি।
এ বিষয়ে নিয়ামতপুর থানার অফিসার ইন চার্জ হুমায়ন কবির বলেন, অভিযোগ পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আমার অফিসার তহসিনকে পাঠিয়ে ঘটনাস্থলে পাঠিয়েছি। উভয়পক্ষকে শান্ত থাকতে বলা হয়েছে। বিষয়টির তদন্তের রিপোর্ট অনুযায়ী প্রয়োজনীয়  আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ নেয়া হবে।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর