× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

চীনের মহাবিপদ

অনলাইন

নিজস্ব সংবাদদাতা
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২১, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১:৩৬ অপরাহ্ন

চীন এমন একটি দেশ যেখানে বিশ্বের বৃহত্তম জনসংখ্যা যা কিনা ১৩৭ কোটির কাছাকাছি, সেখানে অনেক সারনেম বা উপাধি থাকবে সে তো স্বাভাবিকই। আপনিও নিশ্চয়ই তাই মনে করছেন। কিন্তু ব্যাপারটা মোটেই তা নয়। আর ক’দিনের মধ্যে চীনের মোট জনসংখ্যা ১৪০ কোটির কাছাকাছি পৌঁছে যাচ্ছে, তবে সেখানে উপাধি আছে মাত্র ১০০টি। পরিস্থিতি এমন যে বিভিন্ন ধরণের অসুবিধা দেখা দিয়েছে। আপনি যখন চাইনিজ নাম শুনবেন তখন আপনার মনে হবে একই নাম যেন ঘুরে ফিরে আসছে। ওয়াং, লি, ঝাং, লিউ বা চেনের মতো নাম আপনি বারবার শুনবেন। সিএনএন-এর রিপোর্ট মোতাবেক, চীনে মাত্র চার-পাঁচটি উপাধি মোট জনসংখ্যার ৩০ শতাংশ জুড়ে রয়েছে।


চীনা জনসুরক্ষা মন্ত্রণালয়ের নথি থেকে জানা গেছে, চীনা জনসখ্যায় মোট ৬০০০ পদবি ব্যবহার করা হয়। তবে মোট জনসংখ্যার মধ্যে ৮৬ শতাংশ মানুষ মাত্র ১০০টি উপাধি ব্যবহার করে। তবে এব্যাপারে ভারত ও আমেরিকা চীনের চেয়ে এগিয়ে রয়েছে। ভারত জনসংখ্যায় চীনের চেয়ে সামান্য পিছিয়ে রয়েছে, কিন্তু ভারতে কোটি কোটি উপাধি রয়েছে। লক্ষ লক্ষ উপাধি প্রচলিত রয়েছে। আমেরিকার দিকে যদি লক্ষ্য করা যায়, আমেরিকার জনসংখ্যা চীনের এক-চতুর্থাংশ। কিন্তু এখানেও লক্ষ লক্ষ উপাধি প্রচলিত আছে। চীনের সবচেয়ে জনপ্রিয় ১০টি উপাধির মধ্যে রয়েছে ওয়াং, লি, ঝাং, লিউ, চেন, ইয়াং, হুয়াং, ঝাও, উউ এবং ঝো। চীন নিজেকে পুরোপুরি ডিজিটালাইজ করেছে। এপয়েন্টমেন্ট থেকে ট্রেনের টিকিট সবই অনলাইনে টিকিট কেনা হয়। যদি আপনার নামটিতে বিরল অক্ষর বা উপাধি থাকে তবে এদের ডেটাবেসে এটি পাওয়া যাবে না। এ কারণে আপনার সমস্যা হতে পারে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
shiblik
২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৮:৪৪

The problems China faces with names are less problematic than in Bangladesh and India. Our system uses khichuri of Arabic, Bangla, English, Urdu, Hindi, Sanskrit words and structures influenced by several religions.

Rahim
২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩:২৪

Right speak

অন্যান্য খবর