× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

লোকালয়ের কাছে বাঘের বিচরণ, সতর্ক থাকতে সাতক্ষীরায় মাইকিং

বাংলারজমিন

শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
২১ জানুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার

সাতক্ষীরার শ্যামনগরে চুনা নদীর পাড়ে বাঘের বিচরণে সুন্দরবন লাগোয়া গ্রামগুলোতে আতঙ্ক বিরাজ করছে। গত মঙ্গলবার ও বুধবার বিকাল ৫টার দিকে বাঘটি উপজেলার বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের বিপরীত পাশে চুনা নদীর পাড়ে ঘোরাফেরা করতে দেখা গেছে। এদিকে বাঘের আক্রমনে জীবন হানি রোধে এলাকায় মাইকিং করা হয়েছে।
বুড়িগোয়ালিনী গ্রামের মাছ ব্যবসায়ী আবু বক্কার, আমিনুর রহমান, আব্দুর রহমান জানান, তারা গত দুইদিন ধরে বাঘটি নদীর এপার থেকে দেখেছেন। ইউনিয়নের দাতিনাখালী মহাসিন সাহেবের খালের কর্ণারে বাঘটিকে দেখা যায়। গ্রামবাসীরা ভয়ে রাত জেগে পাহারা দিচ্ছে।
বুড়িগোয়ালিনী ইউপি চেয়ারম্যান ভবতোষ কুমার মন্ডল জানান, পশ্চিম সুন্দরবনের সাতক্ষীরা রেঞ্জের মুন্সিগঞ্জ কলবাড়ী এলাকায় চুনা নদীর পাড়ে সুন্দরবনের বাঘ বিচরণ করছে। হঠাৎ বাঘের দেখা মেলায় তার ইউনিয়নের গ্রামবাসিরা আতঙ্কে রাত যাপন করছে।
বাঘটি ছোট একটি খাল পার হয়ে সেখানে অল্প কিছু সময় অবস্থান করে আবারও বনের গভীরে চলে যায়। খাবারের সন্ধানে লোকালয়ের কাছে ঘুরছে বলে তিনি ধারণা করেছেন।
এ বিষয়ে বন বিভাগের মুন্সিগঞ্জ ক্যাম্পের ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনা জানার পরেই টাইগার টিমের সদস্যদের নিয়ে ওই এলাকায় পরিদর্শন করেছি। বাঘটি যাতে লোকালয়ে না আসতে পারে সে বিষয়ে প্রস্তুত রাখা হয়েছে।
উল্লেখ্য, সর্বশেষ ২০১২ সালের ২২শে জুলাই সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার গোলাখালী এলাকায় একটি বাঘ সুন্দরবন থেকে চলে এসেছিল। এরপর লোকালয়ের পাশে এই বাঘটির দেখা মিললো।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর