× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

শাবি’র ছাত্রীদের মেসে প্রবেশের চেষ্টাকালে বহিরাগত যুবক আটক

বাংলারজমিন

শাবি প্রতিনিধি
২২ জানুয়ারি ২০২১, শুক্রবার

শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটকের সামনে অবস্থিত ইনায়া ম্যানশনের চতুর্থ তলায় ছাত্রীদের মেসের রুমের তালা ভেঙে প্রবেশের চেষ্টাকালে এক যুবককে আটক করে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ঘটনায় এক ছাত্রীকে গালিগালাজ ও হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে ঐ যুবকের বিরুদ্ধে। যুবকের নাম সাজ্জাদ হোসেন মঞ্জু। তার বাড়ি নগরীর কালীবাড়ি এলাকায়।
জানা যায়, গতকাল সকাল ৯টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক সংলগ্ন ইনায়া ম্যানশনের চার তলার ফ্ল্যাটের মূল গেটের দরজা ভেঙে করিডরে প্রবেশ করে এক বহিরাগত যুবক। এ সময় দুইটি ফ্ল্যাটের তালা ভাঙার চেষ্টা করে সে। তালা ভাঙার চেষ্টাকালে ফ্ল্যাটে থাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রী বাইরে বেরিয়ে আসে। এ সময় ঐ ছাত্রীকে দেখে বহিরাগত যুবক তাকে হুমকি দেয় ও গালিগালাজ করে।
এ সময় ভিকটিমসহ ঐ মেসের ছাত্রীরা নিচে নেমে চিৎকার দিয়ে মানুষ জড়ো করে। পরে ওই যুবককে আটক করে গণপিটুনি দিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডির উপস্থিতিতে তাকে পুলিশের কাছে সোপর্দ করা হয়।
এদিকে, চলতি মাসের ১৭ তারিখ থেকে আবাসিক হল বন্ধ রেখে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের অনার্স ফাইনাল ও মাস্টার্সের পরীক্ষা শুরু হয়েছে। সিলেট শহরের বিভিন্ন মেস/বাসায় থেকে ছাত্রছাত্রীরা পরীক্ষা দিচ্ছে। বিশেষ করে ছাত্রীরা অনেকটা অনিরাপদ থেকেই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করছে বলে অভিযোগ শিক্ষার্থীদের। শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে আবাসিক হল খোলার দাবি উঠলেও করোনাভাইরাসের কারণে সরকারি নির্দেশনায় বন্ধ রাখা হচ্ছে বলে দাবি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের।
এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর আবু হেনা পহিল বলেন, বহিরাগত যুবকটিকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। এ ছাড়া আমরা ঐ ভবনের নিচে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন গার্ড মোতায়েন করেছি এবং মালিকপক্ষ ঐ বাসার নিচে সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করবে বলে জানা গেছে। এ ঘটনায় ইনায়া ম্যানশনের মালিক জিডি করবেন বলে জানান তিনি।
তবে জালালাবাদ থানার ওসি নাজমুল হুদা খান বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ও মালিকপক্ষ কেউ মামলা করতে রাজি হয়নি। পুলিশ এ বিষয়ে মামলা করে গৃহে অনুপ্রবেশের ধারায় ওই যুবককে কোর্টে চালান করেছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর