× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ১ মার্চ ২০২১, সোমবার

ডিএনসিসি’র বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার অভিযোগ বিহারিদের

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২৩, ২০২১, শনিবার, ৩:৫৮ অপরাহ্ন

আপিল বিভাগের আদেশ অমান্য করে ডিএনসিসি মিরপুরের বিহারি ক্যাম্পগুলো ভাঙচুর করেছে বলে অভিযোগ এনেছে বিহারিদের ৩টি সংগঠনগুলো। আজ রাজধানীর মিরপুরে আপিল বিভাগের আদেশ অমান্য করে বিহারি ক্যাম্প ভাঙচুর ও উর্দুভাষীদের অস্ত্রধারীদের হামলার প্রতিবাদে উর্দু স্পিকিং পিপলস ইউথ রিহ্যাবিলিটেশন মুভমেন্টে, ওয়েলফেয়ার মিশন অব বিহারিজ ও এসপিজিআরসির যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এক মানববন্ধনে এ অভিযোগ করেন বিহারি নেতারা।

মানববন্ধনে ওয়েলফেয়ার মিশন অব বিহারিজের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ বলেন, স্বাধীনতার পর থেকে আমরা এ ক্যাম্পগুলোতে বসবাস করছি। আমরা তো নিজের ইচ্ছায় এখানে থাকছি না। বঙ্গবন্ধু আমাদের এখানে অস্থায়ী ক্যাম্প করে দিয়েছিলেন। আজ আমাদের কাম্পগুলোকে অবৈধ বলে ভেঙে দেয়া হচ্ছে। ক্যাম্প উচ্ছেদ না করতে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন, ডিএমপি পুলিশ কমিশনারসহ সংশ্লিষ্টদের আগামী ২রা মে পর্যন্ত স্থিতাবস্থা বজায় রাখার আদেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। তারা আপিল বিভাগের আদেশ মানতেও রাজি না।
ম্যাজিস্ট্রেট আদেশের কপি দেখতে চাননি। আমরা আদালতের আদেশের মর্যাদা রক্ষার চেষ্টা করেছি। যেখানেই ক্যাম্প উচ্ছেদ হবে সেখানেই প্রতিরোধ হবে। ডিএনসিসি আদালত অবমাননা করবে আর আমরা চুপচাপ মেনে নেব তা কিন্তু হবে না।

তিনি বলেন, গতকাল যখন উচ্ছেদ অভিযান শুরু হয় তখন আমরা ম্যাজিস্ট্রেটকে আদালতের আদেশ দেখাতে চেয়েছিলাম। তিনি আদেশের কপি আমাদের মুখে ফেলে দিয়েছেন। একবার দেখার প্রয়োজনও মনে করেননি। উনি আসলেই ম্যাজিস্ট্রেট নাকি অন্যকিছু সেটা নিয়ে আমার সন্দেহ রয়েছে। তার সাথে আসা সন্ত্রাসীরা আমাদের অস্ত্র দেখাচ্ছিল। তখনই ক্যাম্পবাসীরা উত্তেজিত হয়ে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করেছে। তাদের হাতে যে অস্ত্র ছিল সেটার প্রমাণ আমাদের কাছে আছে। ডিএনসিসি আদালত অবমাননা করেছে। আমরা তাদের বিরুদ্ধে আদালত অবমাননার মামলা করবো। ভাঙচুর করলেও বিহারীরা দখল ছাড়বে না এমন দাবি করে উর্দু স্পিকিং পিপলস ইউথ রিহ্যাবিলিটেশন মুভমেন্টের সাধারণ সম্পাদক শাহিদ আলি বাবলু বলেন, যেহেতু ডিএনসিসি আদালতের আদেশ না মেনে আমাদের ঘর-বাড়ি ভাঙচুর করেছে তাই আমরা এ দখল ছাড়বো না। এখন পর্যন্ত আমাদের ক্যাম্পের প্রায় ৩০০ বাড়ি ও সাড়ে চারশো দোকানপাট ভেঙে ফেলেছে ডিএনসিসি। যদি তারা আদালতের আদেশ না মানেন যদি সংবিধান না মানেন তাহলে আদালতের তো প্রয়োজন নেই। বন্ধ করে দেন সব আদালত। নোটিশ ছাড়া উচ্ছেদের কোনো আইন নাই। তারপরও মেয়র সাহেব বলছেন উচ্ছেদের আগে কোনো নোটিশ দেয়া হবে না। এটা কি মগের মুল্লুক?

এই মানবন্ধনে বক্তব্য রাখেন ওয়েলফেয়ার মিশন অব বিহারিজের সভাপতি মোস্তাক আহমেদ, উর্দু স্পিকিং পিপলস ইউথ রিহ্যাবিলিটেশন মুভমেন্টের সাধারণ সম্পাদক শাহিদ আলি বাবলু, এসপিজিআরসি মিরপুরের সভাপতি আলি মোহাম্মদ, ওয়েলফেয়ার মিশন অব বিহারিজের সাধারণ সম্পাদক মো. হেলাল, মিরপুর ১১ রিলিফ কমিটির চেয়ারম্যান সারফারাজ আলম, মিরপুর ১২’র চেয়ারম্যান জালালুদ্দিন ভন্টু, ইউএসপিওয়াইআরএম’র সাংগঠনিক সম্পাদক মো. শাকিল, দপ্তর সম্পাদক শেখ নাজের উদ্দিন রাশেদ, ওয়েলফেয়ার মিশন অব বিহারিজের সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আনোয়ার, উর্দুভাষী যুব-ছাত্র আন্দোলনের সভাপতি ইমরান খান, সাধারণ সম্পাদক মাকসুদ আলম, ওয়েলফেয়ার মিশন অব বিহারিজ স্টুডেন্টের সভাপতি ইমরান আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক দিলশাদ আহমেদ প্রমুখ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর