× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

আদালতে নি:শর্ত ক্ষমা চাইলেন কুষ্টিয়ার সেই এসপি

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২৪, ২০২১, রবিবার, ১১:০৪ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়া ভেড়ামারা পৌরসভা নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মহসিন হাসানের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের ঘটনায় হাইকোর্টে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত। রবিবার হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় ওই নিঃশর্ত ক্ষমা চেয়ে করা আবেদন দাখিল করা হয়।  সোমবার বিচারপতি মামনুন রহমান ও বিচারপতি খিজির হায়াতের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদনের ওপর শুনানি হওয়ার কথা রয়েছে। তবে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তাহেরুল ইসলাম মানবজমিনকে বলেন, কুষ্টিয়া'র ওই এসপি আইনজীবীর মাধ্যমে নিঃশর্ত ক্ষমা চাওয়ার আবেদন জমা দিতে পারে। তবে আমরা এখনো কোনো আবেদন পাইনি। কাল ওই এসপির আদালতে হাজির হওয়ার কথা রয়েছে। ক্ষমার আবেদনে এসপি বলেছেন, তিনি ম্যাজিস্ট্রেটকে চিনতে পারেননি। তাই এমন অনিচ্ছাকৃত ভুল হয়েছে। ভবিষ্যতে তিনি দায়িত্ব পালনে আরও সতর্ক হবেন।
এ ধরনের ভুল আর কখনও হবে না। আবেদনে তিনি আরও বলেন, বিচার বিভাগের জন্য আমার মনে সর্বোচ্চ সম্মান রয়েছে। কোনো অবস্থাতেই বিন্দুমাত্র অসম্মান দেখানোর কথা দূরে থাক, বরং বিচার বিভাগের দেয়া কাজে নিয়োজিত হতে পারলে নিজেকে সম্মানিত বোধ করি। এ ঘটনায় আমি মনের গভীর থেকে অনুতপ্ত। এজন্য আদালতের কাছে নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা করছি। এর আগে, গত ২০ জানুয়ারি কুষ্টিয়া ভেড়ামারা পৌরসভা নির্বাচনে দায়িত্ব পালনকালে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. মহসিন হাসানের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের ব্যাখ্যা দিতে কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাতকে তলব করেন হাইকোর্ট।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Anu
২৬ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার, ৬:৩০

জনগণের সাথে বেআইনি ব্যাবহার করার এবং আলেম সমাজকে হুমকি ধামকি ও অপমানজনক কুৎসিত কথার আক্রমন করার কারনে তার মনে কি অনুতোপ্ত বোধ আসছে ? মোটেই না ! আসলে বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্র্যাটের সাথে দুর্ব্যাবহারের জন্যেও সে মোটেও অনুতপ্ত নয়, শুধু চাকরী বাচানো আর শাস্তি পাওয়ার ভয় থেকেই তার এই অনুতপ্তের নাটক !

Gulam Mahbub
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৯:০৯

He should be punished for his wrong/unprofessional conduct.

monju
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৩:০৪

অপেক্ষায় আছি সেই তিন অপশন = আল্লাহর মাইর, দুনিয়ার বাইর

M Hossain
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১:৪১

He is just a terrorist. If there is any law in the country, this terrorist must be in jail already.

Arafath Suzon Ahmed
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১২:১২

Shala ekta pungta

ক্ষুদিরাম
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১২:৫২

জনগণের সাথে বেআইনি ব্যাবহার করার এবং আলেম সমাজকে হুমকি ধামকি ও অপমানজনক কুৎসিত কথার আক্রমন করার কারনে তার মনে কি অনুতোপ্ত বোধ আসছে ? মোটেই না ! আসলে বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্র্যাটের সাথে দুর্ব্যাবহারের জন্যেও সে মোটেও অনুতপ্ত নয়, শুধু চাকরী বাচানো আর শাস্তি পাওয়ার ভয় থেকেই তার এই অনুতপ্তের নাটক !

ফারুক হোসেন
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১২:০৩

রক্ষক যখন ভক্ষক হয়ে যায় বিচারের বানী তখন নিভৃতে কাঁদে। একজন ম্যাজিস্ট্রেট যেখানে এসপির রোষানল হতে বাঁচতে পারেনা সেখানে সাধারন মানুষের কথা চিন্ত করাই যায় না। এদের দৃষ্টান্ত মুলক শাস্তির প্রদান করলে হয়ত অন্যরা সাবধান হতো।

Siddq
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ৮:৩৩

Just tell me what else the justice department can do without excepting the funny apology that becomes a norm for this law enforcement(so called) department. Very sadly we can sing “ ধন্য আমার জন্ম মাগো জনমেছি এই দেশে”

Siddq
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ৮:২৯

Just tell me what else the justice department can do without excepting the funny apology that becomes a norm for this law enforcement(so called) department. Very sadly we can sing “ ধন্য আমার জন্ম মাগো জনমেছি এই দেশে”

Nurun Nabi
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৯:০১

Who will perform Zanaza for this Kushtia Police Super after his death? May be he will record his own Zanaza before his death. Oh, Allah please bless, " We the ordinary citizen".

বাহাউদ্দীন বাবলু
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ৫:৩৩

এই গুন্ডা, সন্ত্রাসীকে চাকরি হতে বহিষ্কার করা হোক।

ch.md.nasir uddin
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ২:২৭

চিনতে না পারায় একজন বিজ্ঞ ম্যাজিস্ট্রেটের সাথে খারাপ ব্যবহার করার জন্য ক্ষমা চেয়েছেন এই এসপি সাহেব কিন্তু যে জনগনের ট্যাক্সের টাকায় ওনার বেতন হয় সেই জনগন কে সে চিনতে পারবে তো? ক্ষমা চাওয়া তো দুরে রাখলাম!!!!

ওসমান আল মাহমুদ চৌধু
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ১২:২৪

উনার সেই আলোড়ন সৃষ্টিকারী, ৩টি অপশন এখন কোথায় গেলো।সবাই %শক্তের ভক্ত, নরমের যম"।

khokon
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ১১:০৮

If some one kill other and later ask for pardon that is not justice. Justice should be done according to what he has done. If not he will continue do the same thing. Or people will do continue offence when they see there is no punishment.

Mohammad Abdullah Al
২৪ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ১১:০৫

আমি তো এসপি কে ডান্ডাওয়ালা মনে করেছিলাম। এতো তাড়াতাড়ি আআত্মসমর্পণ করলো। আমি হতাশ।

অন্যান্য খবর