× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শনিবার

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর দিন ধর্ষণ, অতঃপর...

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২৫, ২০২১, সোমবার, ২:৫৯ অপরাহ্ন
প্রতীকী ছবি

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ঘনিষ্ঠতা। তারপর কৌশলে ধর্ষণ। এভাবেই তরুণীকে দিনের পর দিন ধর্ষণ করছিলেন নাছির উদ্দিন মুন্সি (৪৫) নামের এক ব্যক্তি। একপর্যাযে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে যান ওই তরুণী। তারপরই প্রকাশ পায় নাছির উদ্দিন মুন্সির ভয়ঙ্কর রূপ। ঘটনাটি ঘটেছে ঝালকাঠির রাজাপুর উপজেলায় কৈবর্তখালী গ্রামে। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর রোববার অভিযানে নামে পুলিশ।

জানা গেছে, ধর্ষণের ফলে ওই তরুণী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে যান। তখন ভয়ভীতি দেখিয়ে গর্ভপাত করানোর চেষ্টা করেন নাছির।
ততদিনের সময় গড়িয়েছে অনেক। একপর্যায়ে ওই তরুণী একটি ছেলেসন্তানের জন্ম দেন। তখনও নাছির তাকে বিয়ের আশ্বাস দিয়ে গত ৩০শে ডিসেম্বর কৌশলে শিশুটিকে অপহরণ করেন। তরুণী যাতে কোনো অভিযো করতে না পারেন সেজন্যই শিশুটিকে অপহরণ করেন নাছির উদ্দিন মুন্সী।

গত ১৩ই জানুয়ারি চারজনের নাম উল্লেখ করে মোট আটজনের বিরুদ্ধে মামলা করেন ওই তরুণী। মামলা দায়েরের পর রোববার সন্ধ্যায় নলছিটি উপজেলার মালুহার এলাকা থেকে দুই মাস বয়সী ওই শিশুকে উদ্ধার ও ফাতিমা বেগম (৩৫) নামে এক নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ফাতিমা বেগম নলছিটি উপজেলার রানাপাশা এলাকার মৃত সাহেদ আলী হাওলাদারের মেয়ে।

রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আবুল কালাম আজাদ সাংবাদিকদের জানান, ফাতিমার কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। আজ তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। শিশুটিকে আদালতের মাধ্যমে তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এই মামলার আসামি নাছির উদ্দিন মুন্সীকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে বলে জানান তিনি। আসামি নাছির উদ্দিন মুন্সী রাজাপুর উপজেলার বড় কৈবর্তখালী গ্রামের মৃত আবদুল জব্বার মুন্সির ছেলে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
MAJUMDER SANTOSH
২৭ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার, ১২:০৫

এটা উভয় পক্ষের সম্মিলিত মিলন, ভাগে না বনলেই হয় ধর্ষন।

Md Faruque Hossain
২৬ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার, ৯:২৯

মেয়েদের এটা একটা বড় সমস্যা একটু সম্পর্ক করেই শুয়ে পড়ে। নাঊযুবিল্লাহ। হারাম থেকে হারামই বের হয় এটাই সেটা। মহান রব তায়ালা সবাইকে হক্ব মত ও পথে থাকার তৌফিক দান করুন। আমীন।

Nejam Kutubi
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ১১:০৮

ধর্ষণ কি তা আমরা জানিনা এই কারনে! এই সব কারণে ধর্ষণের বিচার হয়না।

Dr.NM Shafique
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৯:৪১

এটা যদি ধর্ষণ মামলা হয় তা হলে ঊভয়েই শাস্তি পাওয়ার যোগ্য। কারণ এটা বিবাহ বর্হিভূত জিনা/ব্যবিচার.অসামাজিক কর্ম কান্ড যাহাতে ঊভয়ের সম্মতি ছিল।

মো: মুজিবুর রহমান
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৪:৫৮

এটা যদি ধর্ষণ মামলা হয় তা হলে ঊভয়েই শাস্তি পাওয়ার যোগ্য। কারণ এটা বিবাহ বর্হিভূত জিনা/ব্যবিচার.অসামাজিক কর্ম কান্ড যাহাতে ঊভয়ের সম্মতি ছিল।

মো: সোহান আহমেদ
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৩:৩৬

এটাকে কিভাবে ধর্ষন বলা যায় যা করেছে দুজনে মিলেই করেছে

TANJILA AKTER
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৩:৪৮

বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দিনের পর দিন ধর্ষণ, বিয়ের আগে যৌন সম্পর্কে জড়ানোর প্রয়োজন কি? ভাগে না বনলেই হয় ধর্ষন।

Khokon
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ২:৪৮

দিনের পর দিন ধর্ষণ, এটা ধর্ষণ নয়। এটাকে বলা যায়, উভয় পক্ষের সম্মিলিত মিলন। যার ফলে তৃতীয় পক্ষের আগমন। প্রয়োজন উভয় পক্ষকে আইনের আওতায় বিচার করা এবং নব জাতকের সম্পূর্ন দায়িত্ব ছেলের পক্ষকে দেওয়া।

Faruque Ahmed
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ৩:৪৫

এটা প্রতারণার মামলা। ধর্ষণ মামলা হতে পারে না।

Kazi
২৫ জানুয়ারি ২০২১, সোমবার, ২:১৬

This is not only isolated incident. Many happened before. Why the girl did not learn lesson from previous news story.

অন্যান্য খবর