× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

মীরের কাণ্ডে সরগরম নেটদুনিয়া

বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক
২৬ জানুয়ারি ২০২১, মঙ্গলবার

সাধারণতন্ত্র দিবসে সোশ্যাল মিডিয়ায় সারমেয়দের ছবি পোস্ট করে কটাক্ষের মুখে পড়লেন অভিনেতা-সঞ্চালক মীর। তার পোস্টে দেখা যায় একটি ছবিতে আরাম করে শুয়ে রয়েছে দু’টি কুকুর। বহির্জগতের কোনো দুশ্চিতা তাদের ছুঁতে পারে না। সঙ্গে ক্যাপশনে লেখা, ওই দেখ। আবার পতাকা তুলে দেশের গান গাইছে ওরা। আবার তো কাল সকাল থেকে ধর্মের নামে একে অপরকে খিস্তি দেবে, মারধর করবে! আমরাই ভাল রে। অন্তত এদের মত দু-মুখো নই। অত্যন্ত সহজ একটা উদাহরণ দিয়ে বাংলা তথা গোটা দেশের বর্তমান পরিস্থিতিটাই যেন তুলে ধরার চেষ্টা করেছেন মীর।
যেভাবে ধর্মের নামে প্রতিদিনই তু-তু ম্যায় ম্যায় হয়ে চলেছে, যেভাবে ধর্মকে রাজনীতির হাতিয়ার হিসেবে ব্যবহার করে চলেছে রাজনৈতিক দলগুলি, তাকেই ব্যঙ্গাত্মকভাবে খোঁচা দিয়েছেন অভিনেতা। আজ সকাল থেকে পোস্টটি নিয়েই চলছে জোর আলোচনা। মীরের ‘রসিকতা’য় দ্বিধাবিভক্ত নেটদুনিয়া। তার অনুরাগীদের একাংশ এই পোস্টের প্রশংসা করেছেন। অনেকে লিখেছেন, মানতে কষ্ট হলেও এটাই সত্যিটা। অনেকে আবার এত গুরু গম্ভীর বিষয়টি এত সহজভাবে প্রকাশ করার জন্য মীরকে ধন্যবাদও জানিয়েছেন। তবে অন্য একটি অংশ এমন পোস্ট দেখে দুঃখই পেয়েছেন। অনেকের দাবি, এমন ঐতিহাসিক দিনে কুকুরের ছবি পোস্ট না করলেও তো চলত। আবার অন্য এক নেটিজেন আরও একধাপ এগিয়ে এসে লিখেছেন, দুর্গাপুজো কিংবা স্বাধীনতা দিবসের মতো বিশেষ সময়ই অনেকে নিজেদের ব্যক্তিগত মতামত দিতে অতি সক্রিয় হয়ে পড়েন। এর অনুরাগীর আবার অনুরোধ, এভাবে মীর যেন নিজের ভাবমূর্তি নষ্ট না করেন। অতীতে একাধিকবার ধর্মের দোহাই দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় তীব্র আক্রমণ করা হয়েছে মীরকে। তার বড়দিনের সেলিব্রেশন কিংবা দুর্গাপুজোয় মেতে ওঠা নিয়ে মৌলবাদীদের রোষানলে পড়তে হয়েছে। গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার দিন সেই সবকিছুরই প্রতিক্রিয়া প্রতিফলিত হল মীরের এই পোস্টে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর