× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১, রবিবার

শায়েস্তাগঞ্জে মুক্তিপণের টাকা না পেয়ে স্কুলছাত্রকে হত্যা

বাংলারজমিন

শায়েস্তাগঞ্জ (হবিগঞ্জ) প্রতিনিধি
২৭ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

হবিগঞ্জের শায়েস্তাগঞ্জে অপহরণের পর মুক্তিপণের ৮০ লাখ টাকা না পেয়ে এক স্কুলছাত্রকে হত্যা করেছে তিন যুবক। গতকাল দুপুর ১টায় অপহরণকারী উজ্জলের পুকুর থেকে অপহৃত তানভীরের লাশ উদ্ধার করা হয়। জানা যায়, গত রোববার রাত ৮টায় উপজেলার নুরপুর ইউনিয়নের পশ্চিম নছরতপুর গ্রামের ফারুখ মিয়ার ছেলে আফরাজ আলী উচ্চ বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির ছাত্র তানভীর আহমেদ (১৬) কে অপহরণ করে একই গ্রামের জলিল মিয়ার ছেলে জাহেদ মিয়া (২৪), সৈয়দ আলীর ছেলে উজ্জল মিয়া (২২) ও মলাই মিয়ার ছেলে শান্ত মিয়া (১৮)। অপহরণ করে তানভীরের বাবা ফারুখ মিয়ার কাছে মোবাইল ফোনে ৮০ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে ওই তিন যুবক। অপহরণকারীদের ফোন পেয়ে ফারুক মিয়ার ঘটনাটি সঙ্গে সঙ্গে শায়েস্তাগঞ্জ থানা পুলিশকে জানান। পুলিশ অপহরণের সঙ্গে জড়িত সন্দেহে গত রোববার রাতেই জাহেদ ও শান্তকে আটক করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করে। তাদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অপহরণের মাস্টার মাইন্ড উজ্জলকে গতকাল সকালে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের একপর্যায়ে আটককৃতদের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গতকাল দুপুর ১টায় হবিগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (এএসপি) রবিউল ইসলাম, শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেবসহ একদল পুলিশ অপহরণকারী উজ্জলের পুকুর থেকে অপহৃত তানভীরের লাশ উদ্ধার করেন।
তানভীরকে গলায় ফাঁস ও বুকে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয়েছে বলে স্বীকারোক্তি দিয়েছে ওই তিন যুবক। এদিকে একমাত্র ছেলেকে হারিয়ে বাবা-মা বার বার মূর্ছা যাচ্ছেন। তাদের আর্তনাদে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠছে।
শায়েস্তাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অজয় চন্দ্র দেব ঘটনাটির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মুক্তিপণ না পেয়ে অপহরণকারীরা ওই ছেলেকে হত্যা করে লাশ গুম করার জন্য পুকুরে ফেলে দেয়। আমরা আসামিদের গ্রেপ্তার করে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করায় তারা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর