× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

ওসমানীনগরে শিশুর মৃত্যু নিয়ে ধূম্রজাল

বাংলারজমিন

ওসমানীনগর (সিলেট) প্রতিনিধি
২৭ জানুয়ারি ২০২১, বুধবার

সিলেটের ওসমানীনগরে ফাইজা বেগম (১০)-এর ঝুলন্ত অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। সে উপজেলার গোয়ালাবাজার ইউনিয়নের পশ্চিম ব্রাহ্মণ গ্রামের তুরণ মিয়ার মেয়ে। ফাইজার মা-বাবার দাবি তাদের মেয়েকে হত্যা করা হয়েছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। জানা যায়, সোমবার তুরণ মিয়া কাজে থাকাবস্থায় বিকালে মা লায়লা বেগম মেয়েকে ঘরে রেখে ছোট ছেলেকে নিয়ে বাজারে যান। সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাড়িতে ফিরে ঘরের আড়ার সঙ্গে মেয়ের ঝুলন্ত  দেহ দেখতে পান। এ সময় মায়ের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসে। তাৎক্ষণিক ফাইজাকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
খবর পেয়ে ওসমানীনগর থানা পুলিশ হাসপাতালে গিয়ে লাশের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করে। শিশুর মা লায়লা বেগম বলেন, বাজার থেকে ফিরে বসতঘর থেকে আমার ভাসুর নুর মিয়া, তার স্ত্রী  রায়না বেগম ও তাদের তিন ছেলেকে বের হয়ে যেতে দেখি। দ্রুত আমি ঘরে ঢুকে মেয়েকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পাই। দ্রুত মেয়েকে উদ্ধার করে অন্যদের সহযোগিতায় হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। শিশুর পিতা তুরণ মিয়া বলেন, আমার মেয়েকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। এব্যাপারে আমি থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছি। ওসমানীনগর থানার ওসি তদন্ত মাকসুদুল আমীন বলেন, এ ব্যাপারে একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিলেট ওসমানী হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর