× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ২ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

বরফের মাথাব্যথা

অনলাইন

নিজস্ব সংবাদদাতা
(১ মাস আগে) জানুয়ারি ২৭, ২০২১, বুধবার, ২:৫৬ অপরাহ্ন

বরফের চাদর দেখতে কার না ভাল লাগে। তবে এই বরফের চাদর যদি ক্ষতি এবং সমস্যা ডেকে আনে তখন তা হয় বাড়তি মাথাব্যথা। টাইমসের একটি খবর অনুসারে ওমাহাতে বর্তমানে বরফ তার রাজত্ব শুরু করেছে। মার্কিন দেশের এই শহরটির রাস্তায় বর্তমানে প্রায় ৪ ইঞ্চি বরফে ঢেকে রয়েছে। ফলে দৈনন্দিন কাজে বের হতে পারছেন না কেউই। রাস্তায় বরফ কাটার কাজ চললেও তা থেকে মুক্তি নেই। নতুন করে তুষারপাত ফের বরফের চাদরের বৃদ্ধি ঘটাচ্ছে। নেহাত যাদের বাড়ি থেকে বের না হলেই নয় তারাই বাড়ি থেকে বের হচ্ছেন।
আমেরিকার সর্বত্র এখনও করোনার ভ্যাকসিন আসেনি। ফলে এই কড়া ঠাণ্ডায় করোনার গতি ফের বাড়বে বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা। বিনা প্রয়োজনে বাড়ি থেকে বের হতে সকলকে নিষেধ করেছে প্রশাসন। সারাদিন ধরেই চলছে বরফ সরানোর কাজ। শিকাগো এবং মিশিগানের বিস্তীর্ণ এলাকাতেও বরফ তার সাম্রাজ্য বিস্তার করেছে। স্থানীয় এক বাসিন্দার কথায়, বরফ দেখতে যতটা ভাল লাগে আসতে ততটা নয়। বরফগুলি এতটাই কঠিন যেখান থেকে এই এলাকার ঘর-বাড়িগুলিও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দ্রুত বরফ সরানো না হলে অনেকগুলি বাড়ি ভেঙে পড়বে বলেও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন অনেকে। অন্য দিকে গোদের ওপর বিষফোঁড়ার মত আবহাওয়া আরো খারাপ হওয়ার দিকে ইঙ্গিত দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। তুষারপাতের পরিমান কমা তো দূর অস্ত। আগামী তিন চারদিন ধরে আরও বেশি মাত্রায় তুষারপাত হবে বলে জানিয়েছে তারা। প্রত্যন্ত এলাকার মানুষদের তাই এলাকা থেকে সরিয়ে সঠিক স্থানে নিয়ে যাওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। যদিও এই বরফের দিন উপভোগ করতে সেখানে হাজির বাইরে থেকে আসা পর্যটকরা। তারা দেদারসে মজা করছেন বরফের এই সমাহারে। একেই হয়তো বলে কারো পৌষমাস, কারো সর্বনাশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর