× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, মঙ্গলবার , ৬ আশ্বিন ১৪২৮ বঙ্গাব্দ, ১২ সফর ১৪৪৩ হিঃ

ভ্যাকসিন পেলে নিয়ে নিন, তবে নিজেকে অপরাজেয় ভাবার কারণ নেই

শরীর ও মন

ডাঃ রুমি আহমেদ
৩১ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার
সর্বশেষ আপডেট: ৮:১২ অপরাহ্ন

এই মুহূর্তে বাংলাদেশে যে ভ্যাকসিনটা পাওয়া যাচ্ছে - তা হচ্ছে অক্সফোর্ড/এস্ট্রাজেনেকার AZD1222 ভ্যাকসিন। এই ভ্যাকসিন নিরাপদ- বেশ কিছু বড় বড় ট্রায়ালে তা প্রমাণিত।

কিন্তু মনে রাখতে হবে সর্বশেষ যে তথ্য আমরা পেয়েছি, (বৃটিশ গবেষণা থেকে) তা অনুযায়ী এই ভ্যাকসিন ৬২% কার্যকর। এর মানে, এই ভ্যাকসিন নিলে আপনার করোনা হবার সম্ভাবনা শতকরা ৬২ ভাগ কমে যাবে। বয়স্কদের ক্ষেত্রে এই ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা হয়তো আরো কম। যুক্তরাষ্ট্রে ট্রায়াল শেষ হবার পর এ ব্যাপারে আমরা পরিষ্কার জানতে পারবো। এই কার্যকারিতারর প্রশ্নে, বিশেষ করে বয়স্কদের ক্ষেত্রে - এই ভ্যাকসিন এখনো যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নে অনুমোদন দেয়া হয়নি।

তবে যতদূর আমরা জানি তা থেকে মনে রাখতে হবে সংখ্যাটা ৬২% - এটা ১০০% না। এর মানে ভ্যাকসিন নেবার পরও করোনা হওয়ার সম্ভাবনা থেকে যাবে।

আর এই ভ্যাকসিন পুরোপুরি কার্যকর হয় দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের দশ দিন পর। সুতরাং এক ডোজ ভ্যাকসিন পাবার পরই যে মাস্ক ইত্যাদি ছুঁড়ে ফেলে ফুরফুরে মেজাজে কানে বাতাস লাগিয়ে ঘুরে বেড়াবেন - তা ঠিক হবে না।

আরব আমিরাতেও অনেকে ভ্যাকসিন নিচ্ছেন - খুব অল্প কিছু ফাইজার ভ্যাকসিন বাদে ভ্যাকসিন সরবরাহের ৯৫% চীনের সাইনভ্যাক ভ্যাকসিন| এটার কার্যকারিতা ৮০% এর কাছাকাছি।
ওদের কিছু ভ্যাকসিন রাশিয়ার স্পুটনিক ভ্যাকসিন - ওটার কার্যকারিতা আরো কম।

এই কথাগুলো বলছি এই কারণে যে - এক ডোজ ভ্যাকসিন পাবার পরই নিজেকে অপরাজেয় ভাবার কোনো কারণ নেই! দু ডোজ ভ্যাকসিন নেবার পরও আপনার কোভিড সংক্রমণ হতে পারে - তবে সেটা 'মাইল্ড' হবার সম্ভাবনা বেশি। কিন্তু আপনি অন্যান্য আনভ্যাকসিনেটেড মানুষকে (বিশেষ করে নিজ বাড়ির লোকজনকে) সংক্রমিত করতে পারেন।

আগে আপনার করোনা হয়ে থাকলেও ভ্যাকসিন নিন। প্রথম ডোজ নেয়ার পর করোনা হলেও সেকেন্ড ডোজ বন্ধ করবেন না  আর এমন কোন অসুখ নেই যার কারণে করোনা ভ্যাকসিন নেয়া যাবে না। ১৮ বছরের উপরে সবাই তা নিতে পারবেন। গর্ভবতী নারীরাও নিতে পারবেন, ল্যাকেটটিং ব্রেস্টফিডিং মা'রাও নিতে পারবেন।

দুটো কথা বলে শেষ করি - এখন ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়ে বাছবিচার করার সময় নেই। ৬০% কার্যকারিতা ০% ইমিউনিটির (রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা) চেয়ে অনেক অনেক বেশি। যেই ভ্যাকসিনই পাবেন তা নিয়ে নিন৷ আর ভ্যাকসিন পেলেই মাস্ক ইত্যাদি ছুড়ে ফেলে দিয়ে 'যা খুশি তা শুরু' করে দেয়াও ঠিক হবে না। মাস্ক পরতে হবে, সামাজিক দূরত্বও মেনে চলতে হবে - ভ্যাকসিন পান আর না পান।

লেখকঃ যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা অংগরাজ্যের অরল্যান্ডো রিজিওনাল হেলথ সেন্টারের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক এবং ট্রেনিং পরিচালক।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Mahmud
৭ জুলাই ২০২১, বুধবার, ৪:১৫

অক্সফোর্ড/এস্ট্রাজেনেকার দুটি ডোজ যথাক্রমে ফেব্রুয়ারি ও এপ্রিল মাসে নেবার পরও দুদিন আগে আমার করোনা পসিটিভ এসেছে । টিকা নেবার পরও পুরোপুরি সাবধানতা অবলম্বন করা অত্যন্ত জরুরী । টিকা যে শতভাগ নিরাপত্তা দেয় না সে বিষয়ে আমি অন্তত শতভাগ নিশ্চিত । টিকা নেবার পরও মাস্ক পরুন , হাত ধুতে থাকুন , সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখুন । তা'হলে কি টিকা নেবার কোন দরকার নেই ? আছে । টিকা নেবার পর করোনা হলেও সেটা খুব ভয়াবহ হবে না এবং জীবনহানি ঘটানোর সম্ভাবনা কম ।

Fazlu
৮ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৯:২৯

এভাবে বললে বাংলাদেশের মানুষের ভ্যাক্সিনের প্রতি আগ্রহ কমে যাবে। তারচে' বলুন, "ভ্যাক্সিন নিন, ড্যামকেয়ার চলুন"। -কারণ ড্যামকেয়ার তো চলছেই। তার উপর 'অনিশ্চয়তা' যুক্ত হলে মানতে চাইবে না। 'যদি' কিছু হয়, সেটা না হয় পরে বুঝাপড়া হবে।

Kazi
৩০ জানুয়ারি ২০২১, শনিবার, ১১:১০

নেগেটিভ সমালোচনা বাদ দিয়ে যখন পালাক্রমে পাবেন ভ্যাকসিন নিন। বিশ্বের অনেক দেশ আগাম বায়না করেও ভ্যাকসিন পাচ্ছে না। সৌভাগ্য বাংলাদেশ ভ্যাকসিন পেয়েছে।

Zahir Islam
৩১ জানুয়ারি ২০২১, রবিবার, ১২:০৩

Very good suggestion.

অন্যান্য খবর