× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৭ এপ্রিল ২০২১, শনিবার

ক্রিকেটের ভগবান থেকে আম্বানির কুকুর, সচিন সম্পর্কে ক্রোধ নেটিজেনদের

ভারত

বিশেষ সংবাদদাতা, কলকাতা
(২ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ৫, ২০২১, শুক্রবার, ১০:৪৩ পূর্বাহ্ন

ঐক্যবদ্ধ ভারত, কৃষক বিদ্রোহ ভারতকে ক্ষুন্ন করতে পারবে না, ভারতে ক্রিকেটের ঈশ্বর সচিন টেন্ডুলকারকে এই একটি টুইট ঈশ্বরের আসন থেকে নামিয়ে আনলো। সোশ্যাল মিডিয়ায় সচিন, সৌরভ, বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা,  অনিল কুম্বলেদের বিজেপির দালাল বলে বর্ণনা করেছেন নেটিজেনরা। সব থেকে বেশি আক্রমণ ধাবিত হয়েছে সচিনের প্রতি। এক নেটিজেন লিখেছেন, সচিন ক্রিকেটের ভগবান থেকে আম্বানির কুকুরে পরিণত হয়েছেন। এই টুইটটিকে সমর্থন করেছেন অসংখ্য মানুষ। আর একজন লিখেছেন, সচিন ভুলে গেছেন যে, এই আন্দোলনরত কৃষকরা একসময় তার খেলা দেখতেন। আর একজন লিখেছেন সচিন যখন খেলতেন তখন বিদেশে উপহার পাওয়া একটা ফেরারি গাড়িকে করমুক্ত করে দিয়েছিলেন তদানীন্তন বিজেপি প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়ী। সচিন এখন তার কৃতজ্ঞতা ফিরিয়ে দিচ্ছেন।
এক সচিন ভক্ত লিখেছেন পাকিস্তানের বিরুদ্ধে পাকিস্তানের মাটিতে অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড় সচিনের ১৯৪ রানের সময় ইনিংস ডিক্লেয়ার করে দেওয়ায় খুব দুঃখ পেয়েছিলাম। এখন মনে হচ্ছে রাহুল সেদিন ঠিক কাজই করেছিলেন। নেটিজেনরা তাদের ক্ষোভের নিশানা করেছেন সচিন টেন্ডুলকারকে। সচিন সমর্থকরা কি বলেন সেটাই এখন দেখার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Md Ashraful ALAM
১২ মার্চ ২০২১, শুক্রবার, ৭:৩১

সচিন যে সাম্প্রদায়িক, তা তখনই বুঝা যেত। স্বল্পকালীন সময় ভারতীয় দলের ক্যাপ্টেন ছিলেন তিনি দুবার। প্রতিবারই তিনি আজহার উদ্দিনকে দল থেকে বহিষ্কার করেছিলেন। তখন তাঁর বিশাল ইমেজের জন্য সেটা আড়াল হয়ে যায়।

shiblik
৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ৬:০১

সময় নস্টকারি, ধনীদের খেলায় কোন "ঈশ্বর" থাকার কথা না। স্পন্সর, জুয়া আর মদের ব্যাপারটা না টানলাম।

Md. Harun al-Rashid
৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ৩:২৯

এদের ঈশ্বর(!) চিন্তা এতো খেলো ও ঠুনকো যে এরা তাকে সারমেয় বানাতে ছাড়েনা। এক অর্থে ঠিক যে তিনি যাদের নৈতিক সমর্থন দিয়েছেন তারা নিজ দেশে ক্ষমতার দাপটে একটা ধর্মীয় সংখ্যা লগিষ্ঠ জনগোষ্টিকে অন্যায়ভাবে সারমেয়র মত তাড়া করছে। এটি মানুষ ঈশ্বরের( Anthropomorphism) কাজ হয় কিভাবে। Godly qualities থাকলে এমন নিষ্পেষনের বিরুদ্ধে রুখে দাড়াতেন।

Malek
৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ২:০০

মানুষ কখনো ঈশ্বর হতে পারে না, শচীন একজন সাধারণ মানুষ মাত্র আর কিছু না, ঈশ্বর একজন তিনি মহান আল্লাহ মানুষ কে বোঝার জন্য তৌফিক দান করুক

SM
৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১, শুক্রবার, ১২:৫৭

Before commenting, one should read Shachin's statement carefully.I think he is not against the farmers' movement rather he is against the outside interference of his country's internal affair. He is true patriot.

ভেসেল
৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৩৯

মানুষ কখনও ঈশ্বর হতে পারে না । সেটা খেলা কিংবা অন্য যেকোনো বিষয়ে । সচিন একজন মানুষ । তার ভুল আছে । তারপরও সচিন, সচিন _ই থাকবেন ।

অন্যান্য খবর