× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

বশেমুরবিপ্রবিতে পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি, বন্ধ থাকবে হল

শিক্ষাঙ্গন

বশেমুরবিপ্রবি প্রতিনিধি
(১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ১৬, ২০২১, মঙ্গলবার, ১০:১৯ পূর্বাহ্ন

গোপালগঞ্জে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি) একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগসমূহকে পরীক্ষা নেয়ার অনুমতি প্রদান করা হয়েছে। তবে বন্ধ থাকবে আবাসিক হল। এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. এ. কিউ. এম মাহবুব বলেন, অনলাইনে ক্লাস শেষ করার পর শিক্ষার্থীরা পরীক্ষা দিতে চাইলে বিভাগের সাথে আলোচনা করে পরীক্ষা দিতে পারবে। তবে আবাসিক হলগুলো বন্ধ থাকবে। আর আবাসিক হলসমূহ খোলার পরে চতুর্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা সম্পন্ন করার জন্য গুরুত্ব দেয়া হবে। একাডেমিক কাউন্সিলের অন্যান্য সিদ্ধান্তের বিষয়ে উপাচার্য জানান, বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী ভর্তির ক্ষেত্রে বৃহত্তর ফরিদপুরের জন্য ২০% কোটা বরাদ্দের বিষয়ে প্রস্তাব রাখা হয়েছে। তবে এ সিদ্ধান্ত এখনও চূড়ান্ত হয়নি। প্রস্তাবটি রিজেন্ট বোর্ডে তোলা হবে এবং এরপর বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের নিকট ও সরকারের নিকট যাবে।
তাছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার আব্দুর রউফ  ইলেকট্রনিক্স অ্যান্ড টেলিকমিউনিকেশন ইঞ্জিনিয়ারিং (ইটিই) বিভাগ সম্পর্কে বলেন, ‘ইটিই বিভাগ হতে যাচ্ছে ইলেক্ট্রিক্যাল অ্যান্ড ইলেক্ট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগ। সামনের শিক্ষাবর্ষ থেকে ইটিই'তে ছাত্র ভর্তি নেয়া হবে না। তবে এখন ইটিই বিভাগ ও ইইই বিভাগকে  একীভূত না করে তাদের আলাদা ক্লাস নেয়া হবে। তবে উপাচার্য স্যার এখনো নোটিশে স্বাক্ষর করেননি।’
উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন যাবৎ পরীক্ষার বিষয়ে সিদ্ধান্ত প্রদানের দাবি জানিয়ে আসছিল বশেমুরবিপ্রবির চতুর্থ বর্ষ এবং মাস্টার্সের শিক্ষার্থীরা। অপরদিকে ইটিই বিভাগের শিক্ষার্থীরা দীর্ঘদিন ধরে ইটিই বিভাগকে ইইই বিভাগের সাথে একীভূতকরণের  দাবিতে আন্দোলন করে আসছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর