× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতা
ঢাকা, ৭ মার্চ ২০২১, রবিবার

বিনম্র শ্রদ্ধায় ভাষা শহীদদের স্মরণ

বাংলারজমিন

বাংলারজমিন ডেস্ক
২২ ফেব্রুয়ারি ২০২১, সোমবার

সারা দেশে যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। একুশের প্রথম প্রহরে দেশের প্রতিটি জেলা-উপজেলায় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয় ভাষা শহীদদের। দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি হাতে নেয়া হয়। বিস্তারিত প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্টে-

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর থেকে জানান, দিনাজপুরে গোর-এ-শহীদ বড় ময়দানে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে একুশের প্রথম প্রহর ১২টা ১ মিনিটে প্রথমে জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম এমপি, জেলা প্রশাসক মো. মাহমুদুল আলম, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বিপিএম এবং পিপিএম (বার)  পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শ্রদ্ধা জানান শহীদদের প্রতি। পরে পর্যায়ক্রমে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ড, মেডিকেল কলেজ, জেলা পরিষদ, দিনাজপুর পৌরসভা, দিনাজপুর প্রেস ক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সংগঠন পুষ্পস্তবক অর্পণ করে শহীদদের শ্রদ্ধা জানায়। দিবসটি উপলক্ষ্যে দিনাজপুরে আলোচনা সভা, বিভিন্ন প্রতিযোগিতা, কবিতা পাঠ, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বই মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এ ছাড়াও পৃথকভাবে দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ গম ও ভুট্টা গবেষণা ইনস্টিটিউট দিবসটি যথাযথভাবে পালন করেছে।
মাগুরা প্রতিনিধি জানান, মাগুরায় একুশের প্রথম প্রহরে মাগুরা সরকারি হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দী কলেজের শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন মাগুরা-১ আসনের এমপি এডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরা-২ আসনের এমপি ড. বীরেন শিকদার, জেলা প্রশাসক ড. আশরাফুল আলম, জেলা পুলিশ সুপার জহিরুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, শ্রমিক লীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, ছাত্রলীগ, জেলা বিএনপি, যুবদল, জেলা জাতীয় পাটি, জাসদ, সরকারি-বেসকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান, সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ শহরের স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানসমূহ। সকাল ৭টায় জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে কালেক্টরেট চত্বর থেকে প্রভাত ফেরিতে অংশ নেয় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা।


স্টাফ রিপোর্টার, হবিগঞ্জ থেকে জানান, হবিগঞ্জে প্রথম প্রহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান মুক্তিযোদ্ধা, রাজনীতিক, প্রশাসনসহ সর্বস্তরের জনগণ। দীর্ঘ অনেক বছর পর নবনির্মিত কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা জানাতে পেরে অনেকটা আপ্লুত হবিগঞ্জবাসী। ২১ এর প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি এডভোকেট আবু জাহির, হবিগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য এডভোকেট আব্দুল মজিদ খান, জেলা প্রশাসক কামরুল হাসান, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. মুশফিক হোসেন চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা সংসদসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতাকর্মীরা। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ কামরুল হাসান জানান, হবিগঞ্জ জেলা শহরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার না থাকাটা ছিল দুঃখজনক। আমি যোগদানের পর শহীদ মিনার নির্মাণের উদ্যোগ গ্রহণ করি। শুরুতেই আমি বলেছিলাম কাজ শুরু করলে অর্থ সংগ্রহে কোনো সমস্যা হবে না। অনেকেই ব্যক্তিগতভাবেও সহযোগিতা করেছেন।

নওগাঁ প্রতিনিধি জানান, শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন নওগাঁ জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশিদ এবং নওগাঁ জেলা পুলিশ সুপার প্রকৌশলী আব্দুল মান্নান মিয়া। পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে তারা ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালন করেন। এরপর একে একে জেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গ সংগঠন, পৌর মেয়র আলহাজ নজমুল হক সনি, সিভিল সার্জন, সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা, চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার, জেলা প্রেস ক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন, জেলা বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠন, বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড নওগাঁ, ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন, একুশে পরিষদ, এলজিইডি, সড়ক ও জনপথ, নওগাঁ সরকারি কলেজ, বিএমসি সরকারি মহিলা কলেজ ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনসহ শহীদদের স্মরণে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদন করেন।

ফুলবাড়ীয়া (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়ায় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস একুশের প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পূষ্পস্তবক অর্পণ যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে। উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ভাষা শহীদদের প্রতি পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন উপজেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, উপজেলা আওয়ামী লীগ-বিএনপি ও তাদের অঙ্গ সংগঠন, পৌরসভাসহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

মেহেরপুর প্রতিনিধি জানান, মেহেরপুরে একুশে ফেব্রুয়ারির প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের স্মরণের মাধ্যমে ‘মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস’ পালিত হয়েছে। ভাষার জন্য জীবন উৎসর্গকারী সব শহীদের স্মরণে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে মেহেরপুরের সর্বস্তরের মানুষ। প্রথম প্রহর ১২টা ১ মিনিটে মেহেরপুর শহীদ ড. সামসুজ্জোহা পার্কে শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন সরকারি- বেসরকারি, রাজনীতিকসহ বিভিন্ন  শ্রেণিপেশার মানুষ।

নবাবগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি জানান, ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলায় যথাযোগ্য মর্যাদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। গতকাল রাত ১২টা ১ মিনিটে উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে উপজেলা পরিষদের পক্ষে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ মো. নাসির উদ্দিন আহমেদ ঝিলু, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এইচ এম সালাউদ্দিন মনজু, নবাবগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলাম শেখ ভাষা শহীদদের স্মরণে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। সকালে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, কৃষক লীগ, মহিলা লীগ, জাতীয় পার্টি, নবাবগঞ্জ প্রেস ক্লাব, নবাবগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, নবাবগঞ্জ সরকারি পাইলট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজ, সরকারি দোহার নবাবগঞ্জ কলেজ, কলাকোপা কোকিল প্যারি উচ্চ বিদ্যালয়, হাসিবা উচ্চ বিদ্যালয়, লাইসিয়াম ক্যাডেট স্কুল, বিয়াম ল্যাবরেটরি স্কুল, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, মুক্তি ক্লিনিক, হাসিবা পোখরাজ কল্যণ ট্রাস্টসহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন।

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি জানান, খাগড়াছড়িতে যথাযোগ্য মর্যাদায় অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে রাত ১২টা ১ মিনিটে ভারত প্রত্যাগত টাস্কফোর্স চেয়ারম্যান কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি খাগড়াছড়ির কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। এ ছাড়া খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মংসুইপ্রু চৌধুরী অপু, জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস, খাগড়াছড়ি পৌর মেয়র নির্মলেন্দু চৌধুরী, জেলা পুলিশ সুপার মো. আবদুল আজিজ, খাগড়াছড়ি জেলা আওয়ামী লীগ, খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন, কাউন্সিল অব ভোক্তা অধিকার, বিএনপিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন খাগড়াছড়ির কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান।

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে জানান, একুশের প্রথম প্রহরে গাজীপুর কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে জেলা প্রশাসন, সিটি করপোরেশন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মেট্রোপলিটন ও জেলা পুলিশ, জেলা পরিষদ, আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের পক্ষ থেকে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী মো. জাহিদ আহসান রাসেল এমপি, গাজীপুর সিটি মেয়র মো. জাহাঙ্গীর আলম, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার খন্দকার লুৎফুল কবির, জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার একেএম জহিরুল ইসলাম প্রমুখ। এ ছাড়া জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, আইইউটিসহ বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, কৃষি ও ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের পক্ষ থেকেও পুষ্পস্তবক অর্পণ সহধর্মিণী নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। কর্মসূচিতে কৃষি ও ধান গবেষণা ইনস্টিটিউটের মহাপরিচালক ড. মো. নাজিরুল ইসলাম ও ড. মো. শাহজাহান কবীর উপস্থিত ছিলেন।

স্টাফ রিপোর্টার, কুমিল্লা থেকে জানান, একুশের প্রথম প্রহরে টাউন হল মাঠের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন স্থানীয় এমপি আ ক ম বাহাউদ্দিন, সংরক্ষিত নারী আসনের এমপি আঞ্জুম সুলতানা সীমা, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. আবু তাহের, জেলা প্রশাসক মো. আবুল ফজল মীর, পুলিশ সুপার ফারুক আহমেদ, এফবিসিসিআই পরিচালক ও কুমিল্লা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি মাসুদ পারভেজ খান ইমরান সিআইপি এবং বিভিন্ন শিক্ষা ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসহ রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ। এ ছাড়া গতকাল বেলা সাড়ে ১১টার দিকে নগরীর কান্দিরপাড় আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক রেলপথ মন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মুজিবুল হক এমপি।

পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, একুশের প্রথম প্রহরে রাত ১২টা ১ মিনিটে পটুয়াখালী পৌরসভা চত্বরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান, জেলা প্রশাসক মো. মতিউল ইসলাম চৌধুরী। পরবর্তীতে পর্যায়ক্রমে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন জেলা ও দায়রা জজ রোকসানা পারভীন, জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত ৩২৯ মহিলা আসনের সংসদ সদস্য কাজী কানিজ সুলতানা হেলেন, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ মইনুল হাসান পিপিএম, সিভিল সার্জন মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম শিপনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

স্টাফ রিপোর্টার, মানিকগঞ্জ থেকে জানান, রাত ১২টা এক মিনিটে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শহীদদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছে জেলা প্রশাসক এস এম ফেরদৌস এবং জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে পুলিশ সুপার রিফাত রহমান শামীম। এরপর পর্যায়ক্রমে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, জেলা পরিষদ, মানিকগঞ্জ প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানায়। এ ছাড়া সকালে মানিকগঞ্জের মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ প্রাঙ্গণে স্থাপিত শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন মুন্নু ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ  লে. কর্নেল (অব.) মো. জহিরুল ইসলাম। স্কুলের প্রধান গেট থেকে শহীদ মিনার পর্যন্ত পুরো রাস্তা রঙ তুলির আল্পনা দিয়ে সাজানো হয়েছে।

স্টাফ রিপোর্টার, খুলনা থেকে জানান, খুলনায় ২১শে ফেব্রুয়ারি প্রথম প্রহরে শহীদ হাদিস পার্কে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মুক্তিযোদ্ধা খুলনা মহানগর ও জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশিদ, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব আব্দুস সালাম, খুলনা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, বিভাগীয় প্রশাসন, জেলা প্রশাসন। খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ, খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপি, রেঞ্জ ডিআইজি, কেএমপি, জেলা পুলিশ, খুলনা প্রেস ক্লাব, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়ন, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ খুলনা মহানগর, আনসার ভিডিপি খুলনা রেঞ্জ, খুলনা টিভি ক্যামেরা জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন, খুলনা কর আইনজীবী সমিতি।

স্টাফ রিপোর্টার, কিশোরগঞ্জ থেকে জানান, শোক, শ্রদ্ধা আর ভালোবাসায় কিশোরগঞ্জে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন করা হয়েছে। গতকাল স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে ভাষা শহীদদের ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন সর্বস্তরের মানুষ। গুরুদয়াল সরকারি কলেজ মাঠে স্থাপিত জেলার কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাত ১২টা এক মিনিটে ভাষা শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করেন প্রেসিডেন্টের বড় ছেলে রেজওয়ান আহাম্মদ তৌফিক এমপি, শহীদ সৈয়দ নজরুল ইসলামের মেয়ে ডা. সৈয়দা জাকিয়া নূর লিপি এমপি, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ শামীম আলম, পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ বিপিএম (বার), জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট মো. জিল্লুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট কামরুল আহসান শাহজাহান, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট এম.এ আফজল, পৌর মেয়র মাহমুদ পারভেজ প্রমুখ। এ ছাড়া সরকারি গুরুদয়াল কলেজ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, সরকারি-বেসরকারি দপ্তর ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করেন।

রাজারহাট (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি জানান, রাজারহাটে প্রথম প্রহর রাত ১২টা ১ মিনিটে উপজেলা পরিষদের শহীদ মিনারে উপজেলা পরিষদ, উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশ, মুক্তিযোদ্ধা ও সন্তান কমান্ড, উপজেলা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ-ছাত্রলীগ, জাতীয় পার্টি, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, রাজারহাট সরকারি মীর ইসমাইল হোসেন কলেজ, উপজেলা স্কাউটস্‌, সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, রাজারহাট পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, প্রেস ক্লাব রাজারহাট, দলিল লেখক সমিতি, বাংলাদেশ মফস্বল সাংবাদিক ফোরাম রাজারহাট, রিপোর্টার্স ক্লাব, রাজারহাট বিডি ডট কম পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদের হলরুমে ইউএনও নূরে তাসনিমের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সুন্দর হাতের লেখা, চিত্রাঙ্কন, কবিতা আবৃত্তি, দেশাত্মক গান প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।   

ফেনী প্রতিনিধি জানান, গতকাল সকালে ভাষা শহীদ আবদুস সালাম স্মৃতি জাদুঘর ও গ্রন্থাগারের সামনে অবস্থিত শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ফেনী-৩ আসনের এমপি মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মো. ওয়াহিদুজজামান, দাগনভূইয়া উপজেলা চেয়ারম্যান দিদারুল কবির রতন, ভাষা শহীদ আবদুস সালামের পরিবারের পক্ষে তার ছোট ভাই আবদুল করিম প্রমুখ। পরে ভাষা শহীদ আবদুস সালাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে একুশের আলোচনা সভায় অতিথিবৃন্দ বক্তব্য রাখেন। সকাল থেকে ভাষা শহীদ আবদুস সালাম স্মৃতি জাদুঘর ও গ্রন্থাগারে প্রচুর দর্শনার্থীর আগমন ঘটে। এদিকে একুশ’র প্রথম প্রহরে রাতে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন ফেনী-২ আসনের এমপি নিজাম উদ্দিন হাজারী। পরে একে একে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, প্রেস ক্লাব, রাজনৈতিক সংগঠন, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ শহীদ বেদিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানায়।    

স্টাফ রিপোর্টার, মৌলভীবাজার থেকে জানান, নানা কর্মসূচির মধ্য দিয়ে মৌলভীবাজারে পালিত হয়েছে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। একুশের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের প্রতি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান সর্বস্তরের মানুষ। রাত ১২টা ১ মিনিটে একে একে স্থানীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন জেলা প্রশাসক মীর নাহীদ আহসান, মৌলভীবাজার-৩ আসনের এমপি ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি নেছার আহমদ, মৌলভীবাজার-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জহুরা আলাউদ্দিন, জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জাকারিয়া, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মিসবাহুর রহমান, পৌর মেয়র মো. ফজলুর রহমান, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, মৌলভীবাজার প্রেস ক্লাব, জেলা আওয়ামী লীগ, মৌলভীবাজার বিজনেস ফোরাম, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক ও পেশাজীবী সংগঠন। এ ছাড়াও পুষ্পস্তবক অর্পণ করে ভাষা শহীদদের প্রতি গভীর শ্রদ্ধা নিবেদন করেন বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনসহ সর্বস্তরের মানুষ।

সরাইল (ব্রাক্ষণবাড়িয়া) প্রতিনিধি জানান, সরাইল উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। শনিবার দিবাগত রাত ১২টা ১ মিনিটে সরাইল কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পস্তবক অর্পণের মধ্য দিয়ে দিবসটির সূচনা হয়। শহীদদের স্মরণে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন সংরক্ষিত আসনের (৩১২) নারী সংসদ সদস্য উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম, উপজেলা পরিষদ ও প্রশাসনের পক্ষে চেয়ারম্যান রফিক উদ্দিন ঠাকুর, নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আরিফুল হক মৃদুল, স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠন, পুলিশ প্রশাসন, স্থানীয় ফায়ার সার্ভিস, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সরাইল সরকারি কলেজ, মহিলা কলেজ, সরাইল প্রেস ক্লাব, জাতীয় পার্টি, বিএনপি, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদ, ত্রিতাল সঙ্গীত নিকেতন, বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সামাজিক সাংস্কৃতিক ও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন।

শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন
স্টাফ রিপোর্টার, টঙ্গী থেকে: একুশে ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষার জন্য আত্মদানকারী সকল শহীদদের প্রতি শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেতন করা হয়। গতকাল ১২টা ১ মিনিটে গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন, টঙ্গী সরকারি হাসপাতালে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে উদ্বোধন করেন। পরে টঙ্গী প্রেস ক্লাবের সভাপতি এম.এ হায়দার সরকার ও সাধারণ সম্পাদক কালিমুল্লাহসহ অন্যান্য সদস্যরা ২১শের প্রথম প্রহরে শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে ভাষা শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান। পরে একে একে বিভিন্ন রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গরা এসে শহীদ মিনারে ফুল দেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর