× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

আমেরিকায় তৃতীয় টিকা

অনলাইন

নিজস্ব সংবাদদাতা
(১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১, শনিবার, ১:২৪ অপরাহ্ন

করোনার তৃতীয় টিকাকে ছাড়পত্র দিল আমেরিকা। ওয়াশিংটন পোস্ট সূত্রে খবর, জনসন অ্যান্ড জনসনের তৈরি টিকাকে তারা বাজারে নিয়ে আসার অনুমতি দিল। তবে বিশ্বের গরিব দেশগুলিতে যাতে এই টিকা সুলভে পাওয়া যায় সেদিকেও তারা জোর দেবে বলে জানা গেছে। একটি বার্তায় জো বাইডেন জানিয়েছেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইতে তারা আরো এগিয়ে যেতে চান। ফলে বেশ কয়েকটি টিকা যদি বাজারে থাকে তবে টিকা সহজলভ্য হবে বলে মনে করেন তিনি। প্রসঙ্গত, করোনার জেরে ইতিমধ্যেই মার্কিন মুলুকে প্রাণ হারিয়েছেন ৫ লাখ ১০ হাজার মানুষ। দীর্ঘমেয়াদি হিসাবে করোনার এই লড়াইকে দেখছে আমেরিকা। তাই তারা কোনো ঢিলেমি দিতে চায় না।
মহামারিকে শিকড় থেকে তুলে দিতে জানে আমেরিকা। আর তারা সেটাই করবে, জানান বাইডেন। মার্কিন এই নীতিতে সমর্থন করেছে হু। তাদের কর্তা ট্রেডস গ্যাব্রিয়াস বলেছেন, বিশ্বের শক্তিশালী এবং বিত্তশালী দেশগুলি যদি টিকা আবিষ্কারে উন্নতি না করে তবে গরিব দেশগুলি কিভাবে মুক্তি লাভ করবে। প্রতিটি বিত্তশালী দেশের উচিত অন্য খাতে খরচ কমিয়ে স্বাস্থ্যখাতে খরচ বাড়ানো। করোনাখাতে আমেরিকা ইতিমধ্যেই আরো ১ দশমিক ৯ ট্রিলিয়ন অর্থ বরাদ্দ করেছে। তবে এখানেই থেমে থাকলে হবে না, বিশ্বের গরিব দেশগুলি যাতে সুলভে প্রচুর টিকা পায় সেদিকে নজর রাখাও সকলের দায়িত্ব বলে জানিয়েছে হু। ব্রাজিলে ইতিমধ্যেই ফের নতুন করে মাথাচাড়া দিতে শুরু করেছে করোনার নতুন স্ট্রেন। সেখানে তাই দ্রুত টিকা পৌঁছানোতে জোর দিয়েছে হু। তবে আমেরিকার তৃতীয় এই টিকা বাজারে এলে তা সুলভ মূল্যে পাওয়া যাবে বলেই মনে করে বাইডেন প্রশাসন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর