× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২১ এপ্রিল ২০২১, বুধবার

ছাত্রের কাছে শিক্ষিকার নগ্ন ছবি, চাকরিচ্যুত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) ফেব্রুয়ারি ২৭, ২০২১, শনিবার, ৩:৪১ অপরাহ্ন

সাবেক ছাত্রদের কাছে নিজের নগ্ন ছবি পাঠানোর অভিযোগে চাকরি হারালেন যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডায় দুই সন্তানের মা, স্কুল শিক্ষিকা আলেক্সান্দ্রা হ্যান্ডওয়ার্গার (৪৭)। তিনি মিয়ামি বিচে হিব্রু একাডেমি নামে একটি বেসরকারি স্কুলে চাকরি করতেন। এই স্কুলটিতে ইহুদি ছেলেমেয়েকে শিক্ষা দেয়া হয়। বছরে সেখান থেকে বেতন পেতেন ২৪ হাজার ডলার। কিন্তু নগ্ন ছবি পাঠানোর অভিযোগে গত ৩০ শে জানুয়ারি চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়েছে তাকে। বিলম্বে এ খবর দিয়েছে অনলাইন ডেইলি মেইল। এতে বলা হয়েছে, তার সাবেক ছাত্রদের একজন এমন ছবির কথা স্কুলকে জানালে পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। ওই ছাত্রের বয়স বর্তমানে ১৮ বছর।
তার সঙ্গে সহপাঠীরা এখন পড়াশোনা করছে ইসরাইলে। তারা জানিয়েছে, শিক্ষিকা আলেক্সান্দ্রা হ্যান্ডওয়ার্গারের কাছ থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম স্নাপচ্যাটের মাধ্যমে ওইসব ছবি পাঠানো হয়েছে তাদের কাছে।  হিব্রু একাডেমিতে তিনি ইংরেজি বিভাগের প্রধান ছিলেন। তার নগ্ন ছবির বিষয়টি ফাঁস হওয়ার পর স্কুল কর্তৃপক্ষ তার কাছে জানতে চায়, কিভাবে শিক্ষার্থীরা ওই ছবি পেয়েছে। জবাবে তিনি বলেছেন, কিভাবে ছাত্রদের কাছে ওই ছবি গেছে তা তিনি মনে করতে পারছেন না। তবে ওই ছবি যে তিনি তুলিয়েছিলেন তা স্বীকার করেছেন। বিষয়টি কয়েক সপ্তাহ পরে ১৯ শে ফেব্রুয়ারি জানানো হয়েছে মিয়ামি বিচ পুলিশকে। ওদিকে অভিযোগকে ভিত্তিহীন বলে দাবি করেছেন আলেক্সান্দ্রা হ্যান্ডওয়ার্গারের আইনজীবী জুড ফ্যাসিডোমো। তিনি বলেছেন, আমার মক্কেল কোনো ছবি দেখেননি। আমিও কোনো ছবি দেখিনি। ফলে এ নিয়ে মন্তব্য করার মতো অবস্থায় আমি নেই। এখনও কোনো ফৌজদারি অপরাধ গঠন করা হয়নি। মিয়ামি বিচ পুলিশ কি তদন্ত করে তা দেখার জন্য কৌতুহলী হয়ে আছি। তবে অভিযোগকে আমরা গুরুত্বর হিসেবে নিয়েছি। কিভাবে শিক্ষার্থীদের কাছে ছবি গেল তা বোঝা যাচ্ছে না।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর