× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

জমাট শহর!

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) মার্চ ১, ২০২১, সোমবার, ৬:০৬ অপরাহ্ন

জমাট শহর। ইংরেজিতে বলা হয় ‘ফ্রোজেন সিটি’। শুনে মনে হতে পারে শহর আবার জমাট হয় নাকি! কিন্তু আসলে হয়। রাশিয়ার সেমেন্তোজাভোদস্কি অঞ্চলের তাপমাত্রা শীতের সময় নেমে যায় মাইনাস ৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

এমন ঠাণ্ডায় সেখানে বাতাস পর্যন্ত জমে যাওয়ার অবস্থা। ফলে বাসাবাড়ি, গাড়ি, গাছপালা, রাস্তাঘাট যা আছে, তার সবটাই কঠিন বরফে ঢেকে যায়। বাড়ির ভিতরে আসবাবপত্রের ওপর, সিঁড়ির ওপর বরফের মোটা আস্তরণ।

কোথাও বাড়িটির মেঝে পর্যন্ত ডুবে থাকে বরফে।
তাই এমন শহর ছেড়ে মানুষ একটু উষ্ণতার জন্য ছুটে যায় মস্কোসহ বিভিন্ন শহরের দিকে। ফলে শীতের সময় ওই এলাকার ভারকুতা শহর থেকে ১১ মাইল দূরের জনবসতি থাকে জনমানবশূন্য। এ জন্য একে কেউ কেউ ভূতের শহরও বলে থাকেন।

ওই শহরের সচিত্র ছবি দিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে অনলাইন ডেইলি মেইল। এতে দেখা যায়, শীতের কয়েক মাস সেখানে তাপমাত্রা ভয়াবহ ঋণাত্মকে চলে যাওয়ায় ভবনগুলোতে বরফের আইসলেস তৈরি হয়েছে।

ভবনের মেঝেতে বরফ শক্ত হয়ে আছে। আসবাবপত্র নয়, যেন বরফ দিয়ে ঢেকে রাখা কিছু দাঁড় করিয়ে রাখা হয়েছে। বরফের আইসলেট জানালার কাচের ওপর ঝুলে আছে।

কোথাও দেখা যায় লরিগুলো বরফের ভিতর পরিত্যক্ত পড়ে আছে। এমন অবস্থায় সেখানে বসবাস করা অসম্ভব। তাই ২০১৩ সাল থেকে ওই অঞ্চলের মানুষ প্রতি বছর শীতের সময় অন্য শহরে চলে যায়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Noor Mohammad
১ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৭:৫৯

Natural nice .

অন্যান্য খবর