× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ এপ্রিল ২০২১, মঙ্গলবার

সিঙ্গাইরে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যা

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, মানিকগঞ্জ থেকে
(১ মাস আগে) মার্চ ২, ২০২১, মঙ্গলবার, ২:৪২ অপরাহ্ন

অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে মানিকগঞ্জের সিংগাইর উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ফারুক হোসেন মিরু ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে সোমবার দিবাগত রাতে তাঁকে কুপিয়ে আহত করা হয়। সিংগাইর সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি মোল্লা মোহাম্মদ দুলাল ও ফারুক হোসেনের মধ্যে আধিপত্য নিয়ে অভ্যন্তরীণ কোন্দল চলে আসছে। এর জেরে দুলাল ও তাঁর বড় ভাই উপজেলা পরিবহন শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন এবং তাঁদের সহযোগীরা ফারুককে কুপিয়ে আহত করেন। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।
জানা গেছে, প্রায় এক মাস আগে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মোল্লা মোহাম্মদ দুলাল ও তাঁর সহযোগীরা ফারুক হোসেনকে মারধর করেন। এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে কোন্দল দেখা দেয়। সোমবার দিবাগত রাতে উপজেলার জয়মন্টপ এলাকা একটি গানের অনুষ্ঠান থেকে মোটরসাইকেলে করে বাড়িতে ফিরছিলেন ছাত্রলীগ নেতা ফারুক হোসেন।
রাত ১টার দিকে সিঙ্গাইর পুরাতন বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌঁছালে প্রতিপক্ষের দুলাল ও তার ভাই জালাল মোটরসাইকেলে গতিরোধ করে ধারালো অস্ত্র (চাইনিজ কুড়াল) দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়। সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রাতেই তাঁকে ঢাকার ঢাকার জাতীয় অর্থোপেডিকস (পঙ্গু) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থঅয় মঙ্গলবার দুপুর একটার দিকে তিনি মারা যান।
সিংগাইর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শহিদুর রহমান বলেন, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে দুলাল ও জালাল চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে ফারুককে হত্যা করে। এ ব্যাপারে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করা হবে।
এ ব্যাপারে সিংগাইর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বলেন, কিলিং মিশনে দুইটি সিএনজিতে থাকা ৬ জন অংশ নেয়। খুনের মোটিভ নিশ্চিত হলেও এখনো কেউ মামলা করেনি।  
এ ব্যাপারে পুলিশ সুপার রিফাত রহমান বলেন, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের চিহিৃত করতে পুলিশি অভিযান চলছে।  শিগগিরই তাদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর