× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২৩ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ১০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

আদম ব্যবসায়ীর প্রতারণা

বাংলারজমিন

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
৪ মার্চ ২০২১, বৃহস্পতিবার

ঝিনাইদহে এক মুক্তিযোদ্ধাসহ ৪ ব্যক্তি এক আদম ব্যবসায়ীর প্রতারণার শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মঙ্গলবার দুপুরে ঝিনাইদহ প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগীরা। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ভুক্তভোগী ঝিনাইদহ সদর উপজেলার দরিগোবিন্দপুর গ্রামের মুক্তিযোদ্ধা রবিউল আলম। এ সময় আরো ৩ ভুক্তভোগী সদর উপজেলার মান্দারবাড়িয়া গ্রামের শামীম জোয়ার্দার, কালীগঞ্জ উপজেলার পারশ্রীরামপুর গ্রামের আমজাদ হোসেন, একই গ্রামের আমিরুল ইসলামসহ তাদের পরিবারের সদস্যরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়- মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য তারা ৪ জন গত ২০১৫ সালের ৯ই মার্চ উপজেলার ভগবাননগর পূর্বপাড়া গ্রামের খায়বার আলী বাটুল ও তার পরিবারের কাছে ১২ লাখ ২০ হাজার তুলে দেন। কিন্তু বিদেশে না পাঠিয়ে বিভিন্ন তালবাহানা শুরু করে তারা। এই অবস্থায় প্রতারক বাটুল তার ছেলে খায়রুলের মাধ্যমে ২০১৬ সালের ১লা অক্টোবর ভুক্তভোগীদের কাছে একটি ভুয়া ভিসা পাঠিয়ে দেয়। এরপর তারা ঢাকা জনশক্তি অফিসে যোগাযোগ করিলে ভিসাগুলো জাল প্রমাণিত হয়।
এ বিষয়ে চলতি বছরের ১২ই ফেব্রুয়ারি বাটুলের বাড়িতে টাকা ফেরত চাইতে গেলে উভয়ের মধ্যে বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এক পর্যায়ে পরিবারের সদস্যরা জোটবদ্ধ হয়ে তাদের মারপিট করে। এ ঘটনায় আদম ব্যবসায়ী বাটুল তার স্ত্রী ও ভাইসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে ঝিনাইদহ সদর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন ভুক্তভোগীরা। এরপর থেকে প্রতারক বাটুল অগ্যাতনামা স্থান থেকে মামলা তুলে নেয়ার জন্য তাদের প্রাণনাশের হুমকি দিয়ে আসছেন। ভুক্তভোগীরা আরো বলেন, শুধু তাদের কাছ থেকে নয়, আদম ব্যবসায়ী বাটুল বিভিন্ন এলাকার অন্তত ২০ জনের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে প্রায় ৫০ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।


 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর