× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

জীবনের নিরাপত্তা চাইলেন গৌরীপুরের এমপি নাজিম

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার, ময়মনসিংহ থেকে
(১ মাস আগে) মার্চ ৮, ২০২১, সোমবার, ২:০৮ অপরাহ্ন

সংবাদ সম্মেলনে নিজের জীবনের নিরাপত্তা চাইলেন ময়মনসিংহ-৩ (গৌরীপুর) আসনের সরকার দলীয় এমপি বীর মুক্তিযোদ্ধা নাজিম উদ্দিন আহমেদ। রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার সময় ময়মনসিংহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনে নিজের অসহায়ত্বের কথা প্রকাশ করেন তিনি। তিনি জানান, রোববার সকাল ১২টার সময় গৌরীপুরে ৭ মার্চের সরকারি ও দলীয় কর্মসূচিতে যোগদান করতে যাওয়ার পথে বাসস্ট্যান্ড এলাকায় পৌছলে গৌরপুরের পৌর মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলামের নেতৃত্বে একদল সশস্ত্র সন্ত্রাসী তার গাড়িবহরে হামলা চালিয়ে সাথে থাকা দলীয় নেতাকর্মীদের মারধর করে বেশ কয়েকজনকে আহত করে। খবর পেয়ে পুলিশ এসে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা পরিষদে নিয়ে যাওয়া হয়। এমপি নাজিম উদ্দিন আরও জানান, মেয়র সৈয়দ রফিকুল ইসলাম নির্বাচিত হওয়ার পর থেকেই গৌরীপুরে সন্ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করেছে। তার বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট হত্যা মামলা থাকার পরও তাকে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে না। পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে এমপি বলেন, কোন স্বার্থের কারণেই পুলিশকে অভিযোগ দেয়ার পরও মেয়র রফিক এবং তার সন্ত্রাসী বাহিনীর বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নিচ্ছে না। সংবাদ সম্মেলনে তিনি এবং তার পুত্র তানজির আহমেদ রাজিবের জীবনের নিরাপত্তা দাবি করেছেন।
এসময় গৌরীপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. হেলাল উদ্দিন, তথ্য ও গবষণা সম্পাদক এডভোকেট জসীম উদ্দিন, অচিন্তপুর ইউপি চেয়ারম্যান শহিদুল ইসলাম, পরাজিত নৌকার প্রতীকের মেয়র প্রার্থী শফিকুল ইসলাম হবিসহ নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
জিলানী
৮ মার্চ ২০২১, সোমবার, ৯:৪৮

আহারে এই সময়ে একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা জীবনের নিরাপত্তার জন্য হাহাকার করতেছেন। ইশ্বর সবাই কে বাংলার মাটিতে সুখী কর।

কাজি
৮ মার্চ ২০২১, সোমবার, ২:২৪

মেয়র কি বিদ্রোহী প্রার্থী বিজয়ী হয়েছে ? আওয়ামী লীগ এখন কি নিজেদের মাঝে খুনোখুনি আরম্ভ করে শত্রু দলকে ক্ষমতায় বসাবে। যদি তাই হয় তবে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র ও পিঠের চামড়া বাঁচাতে দেশ ছাড়া হতে হবে। এইটা বুঝে না ? অতি তরঙ্গ নদী বয়না চির কাল। উশৃঙ্খল পতন ঘনিয়ে আসার আলামত।

অন্যান্য খবর