× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২৩ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ১০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

মেলান্দহে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষককে গণধোলাই, পুলিশে সোপর্দ

বাংলারজমিন

জামালপুর (মেলান্দহ) প্রতিনিধি
৯ মার্চ ২০২১, মঙ্গলবার

জামালপুরের মেলান্দহে মাদ্রাসাছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক শিক্ষককে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। ধর্ষকের নাম মুখলেছুর রহমান কাজল (৪২)। তিনি উপজেলার আগপয়লার ঠেংগাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। ঘটনাটি ঘটেছে রোববার মেলান্দহ বাজারের মুকুল মার্কেটে। জানা যায়, ২০১৭ সালে নাগেরপাড়াস্থ নিজ বসতবাড়িতে মিছবাহুল জান্নাত মহিলা মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠা করেন কাজল। ওই মাদ্রাসায় মিজান জামাত ক্লাসে পড়ে একই উপজেলার এক শিশু শিক্ষার্থী। ঘটনার দিন মাদ্রাসার পরিচালক ও শিক্ষক মুখলেছুর রহমান কাজলের স্ত্রী-সন্তান বাড়িতে না থাকায় রাতে ভাত রান্নার কথা বলে ছাত্রীটিকে ডেকে নিয়ে যায়। পরে সারারাত আটকে রেখে একাধিকবার ধর্ষণ করে।
ওই ছাত্রী মাদ্রাসা থেকে বাড়িতে গিয়ে তার মাকে সব খুলে বলে। এ ঘটনা জানাজানি হলে লম্পট মুখলেছ দু’দিন গাঢাকা দেয়। গত রোববার তাকে মেলান্দহ বাজারের মুকুল মার্কেটে দেখে বিক্ষুব্ধ জনতা উত্তম মধ্যম দিয়ে আটকে রাখে। পরে পুলিশে খবর দিলে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। এদিকে ধর্ষণের ঘটনায় ছাত্রীটির বাবা বাদী হয়ে মেলান্দহ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। ওই মামলায় আসামিকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। মেলান্দহ থানা অফিসার ইনচার্জ ময়নুল হোসেন বলেন, ছাত্রীর জবানবন্দি অনুসারে থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে। ছাত্রীর বাবা বলেন, আমার শিশুকন্যার সঙ্গে যে অন্যায় হয়েছে, আমি তার সর্বোচ্চ শাস্তি চাই।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর