× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

জাতীয়করণের দাবিতে ফের আন্দোলনে প্রাথমিক শিক্ষকরা

শিক্ষাঙ্গন

স্টাফ রিপোর্টার
(১ মাস আগে) মার্চ ১৬, ২০২১, মঙ্গলবার, ৭:২৮ অপরাহ্ন

বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির (মহাজোট) উদ্যোগে আবেদনকৃত ও দলিলকৃত সকল বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের দাবিতে ৭ম দিনের অবস্থান কর্মসূচি চলছে।


অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তারা বলেন, ইতিপূর্বে আমরা জাতীয়করণের জন্য ২০১৮ সালে ১৮ দিন ও ২০১৯ সালে ৫৬ দিন জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান ও অনশন কর্মসূচি পালন করেছি। তখনকার সময় আকরাম আল হাসান অতিরিক্ত সচিব, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক প্রতিনিধি দল এসে আমাদের জাতীয়করণের আশ্বাস দিলেও তা বাস্তবায়ন করেনি। প্রধানমন্ত্রী আপনি নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতু নির্মাণ করছেন। বিদেশী ১০ লাখ রােহিঙ্গার খাদ্য-বস্ত্র ও বাসস্থানের ব্যবস্থা করেছেন এবং নতুন প্রজেক্টের বিদ্যালয়গুলাে না করে পুরাতন বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণের আওতায় আনলে দেশের বেকারত্ব লাঘব এবং ঘরে ঘরে চাকরির ব্যবস্থা হবে। যা বর্তমান সরকার জাতির কাছে ওয়াদাবন্ধ।

অবস্থান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখেন মােঃ কামাল উদ্দিন, নূর মােহাম্মদ পাটোয়ারী, শেখ মতিয়ার রহমান, মােঃ সাইদুল ইসলাম, মােঃ কবির হােসেন, মােঃ লিটন খান, যে ফরিদুল ইসলাম, মােঃ আশরাফুল আলম, মােঃ আল আমিন, মােঃ শাহাদাৎ হোসেন, মােঃ আনিছুর রহমান, মােঃ সুজা, মেয় মােবারক হােসেন, মােঃ নজরুল ইসলাম, নীলা রাণী, নীতি রাণী সিংহ, মােঃ খায়রুল বাসার প্রমূখ।


অবস্থা কর্মসূচিতে শিক্ষকরা দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ঘরে ফিরে যাবেন না বলে জানান। তবে আগামীকাল ১৭ই মার্চ বঙ্গবন্ধুর জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে তা স্থগিত রেখেছেন। তাদের দাবি আদায় না হলে ফের ১৮ই মার্চ থেকে আন্দোলন চালিয়ে যাবার ঘোষণা দেন তারা।
 

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর