× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীসেরা চিঠি
ঢাকা, ৩০ জুলাই ২০২১, শুক্রবার, ১৯ জিলহজ্জ ১৪৪২ হিঃ

খুলির রহস্য

রকমারি

নিজস্ব সংবাদদাতা
১ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার
সর্বশেষ আপডেট: ১:১২ অপরাহ্ন

মাটির ১০০ ফুট নিচে নেমে গেছে সংকীর্ণ আঁকাবাঁকা পথ। দুর্গম পথে নেমে খোঁজ মেলে রহস্যজনক খুলির। উত্তর ইতালির এক গুহায় এই খনির সন্ধান পান একদল অনুসন্ধানকারী । এমন এক জায়গায় কিভাবে খুলিটি এল এসব জানতেই খুলিটি নিয়ে গবেষণা শুরু। এক গবেষকের নেতৃত্বে ১২ জনের একটি দল তদন্ত করতে গুহায় প্রবেশ করে। প্রথমে তারা খুলিটি সঙ্গে করে আনেন নি। পরে আবার গুহার ঢুকে খুলিটি গবেষণাগারে নিয়ে আসেন। রয়টার্স সূত্রের খবর এই খুলি এখন গবেষকদের কাছে একটি বিশেষ আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু।
গবেষণায় প্রথমেই জানা গেছে খুলিটি একজন নারীর বয়স অন্তত পাঁচ হাজার বছর। কিন্তু এক নারী একা কিভাবে ভয়ানক দুর্গম এই গুহায় গিয়েছিলেন তা জানতে বেশ কৌতুহলী হয়ে পড়েন বিজ্ঞানীরা। যাইহোক গবেষণায় ক্রমশ জানা যায় মৃত্যুর আগে দীর্ঘদিন অপুষ্টিতে  ছিলেন ওই নারী। আরো জানা যায় মৃত্যুর পর তার শরীর থেকে মাংস খুবলে নেয়া হয়েছিল। কিন্তু কেন এসব রহস্যের সমাধান হয়নি। তবে একটা বিষয় জানা গেছে ওই গুহাটির কিছুদূরে মানুষের হাড়গোড়ের সন্ধান পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা।  জানা গেছে সেটি ছিল একটি কবরস্থান। আগে এর পাশ দিয়েই জলস্রোত বইতো। সেই জলধারা ঢুকতো গুহার ভেতরে। ওই জলের টানেই হয়তো কোন ভাবে কোন কঙ্কালের দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে স্রোতে ভেসে এই গুহায় পৌঁছেছে। তবে ৫০০০ বছর আগের এই খুলি বিজ্ঞানীদের কাছে নতুন অনেক দিকের সন্ধান দিতে পারে। এমনিতেই রোম এক ঐতিহাসিক স্থান। অতীত ইতিহাস যদি ঘেঁটে দেখা যায় তাহলে দেখা যাবে মানুষের জীবন তথা ইতিহাসের পাতায় কতটা গুরুত্বপূর্ণ এই দেশটি। সেখানে নারীর এই পাঁচ হাজার বছর পুরনো মাথার খুলি এক নতুন দিকের সন্ধান দেবে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর