× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ
কলকাতা কথকতা

বঙ্গভঙ্গ করতে চাইছে বিজেপি, হিন্দু-মুসলিম বিভাজনে সাড়া দেবেন না, মমতার আবেদন

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(১ মাস আগে) এপ্রিল ৪, ২০২১, রবিবার, ৯:৪৭ পূর্বাহ্ন

১৯০৫ সালে বৃটিশরা বাংলাকে ভাগ করার চেষ্টা করেছিল। এবার বঙ্গভঙ্গের চেষ্টা করছে বিজেপি। সেবার রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গর্জে উঠেছিলেন বঙ্গভঙ্গের বিরুদ্ধে। এবার আপনারা আওয়াজ তুলুন। বিজেপি হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে বিভাজন ঘটানোর চেষ্টা করছে। আপনারা এটা হতে দেবেন না। ভোট প্রচারে বেরিয়ে এই কথা করজোড়ে বলছেন তৃণমূল কংগ্রেস সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বলেন, এই রাজ্যে দুই সম্প্রদায়ের মানুষই পাশাপাশি বাস করেন সম্প্রীতির আবহে।
ভোট পাওয়ার লক্ষ্যে বিজেপি হিন্দুদের মনে তীব্র মুসলমান বিরোধী মানসিকতা এনে দিচ্ছে যা পশ্চিম বাংলায় নজিরবিহীন।  আব্বাস সিদ্দিকীর নাম না করে মমতা বলেন, বিজেপি আশ্রিত একটি দলের নেতা আবার হিন্দু নিধনের কথা বলছে।  এই শয়তানকে মাথা চাড়া দিতে দেবেন না। মনে রাখবেন, এই নেতা বিজেপির প্লান্টেড। মমতা বলেন, বিজেপি খুব সূক্ষ্মভাবে হিন্দু-মুসলমান দাড়িটি টেনে দিতে চাইছে। পশ্চিম বাংলার মানুষ যেন বিজেপির এই ফাঁদে পা না দেয়।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Mahmud
৫ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ২:৩৯

মুসলিম বিদ্বেষী বিজেপি যেভাবে পশ্চিম বঙ্গকে গ্রাস করতে চাচ্ছে তা থেকে বাঁচার জন্য আব্বাস সিদ্দীকি এবং মমতা একজোট হয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়তে পারতেন । কলকাতার মসনদে বিজেপির বসা বাংলাদেশের জন্য মঙ্গলকর কিছু বয়ে আনবে না । ভারতে হিন্দুত্ববাদ যতো বেশী মাথাচাড়া দিয়ে উঠবে , বাংলাদেশেও ইসলামী শক্তিগুলো এবং তার সাথে কিছু জঙ্গী গোষ্ঠিও মাথাচাড়া দেবার চেষ্টা করবে , যেটা আমাদেক জন্য কোন শুভ বার্তা বয়ে আনবে না । ১৯০৫ সালে বঙ্গভঙ্গ , ১৯১১ সালে রদ , আবার ১৯৪৭ পাকাপোক্ত ভঙ্গের পর নতুন করে বঙ্গভঙ্গের কিছু নেই । তবে হ্যাঁ , পশ্চিমবঙ্গ যদি কখনো ভারত থেকে ছুটে আমাদের সাথে আসতে চায় তবে নতুন করে রদের সম্ভাবনা হতেই পারে ।

Professor Dr.Mohamme
৪ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ১১:২০

১৯০৫ সালের বঙ্গভঙ্গের কারনে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর গর্জে উঠেছিলেন কারন, তার জমিদারী খোয়া গিয়েছিল । জীবদ্দশায় হারান জমিদারী দূর থেকে দেখেছেন কি ভাবে পুরব বাংলার মুসলমান চাষারা একত্রিত হয়ে তাকে উচ্ছেদ করেছিল। যাই হোক, ১৯১১ সালে উচ্চ বর্ণ হিন্দুদের খুশি করার জন্য তা আবার রদ করা হয় কিন্তু এবার বঙ্গভঙ্গের চেষ্টা করছে বিজেপি; মমতা ব্যানারজীর এই দাবি ধোপে টিকবেনা এবং তা কখনো হবেওনা। বরং ১৯৭১ সালের মত রাষ্ট্রপতি শাসন চালু হবে ।

কাজি
৩ এপ্রিল ২০২১, শনিবার, ৯:৫৮

জনগণ বুঝতে চেষ্টা করবে কি ? আমরা বাংলাদেশে থাকি না। বিদেশে বসে খবরের কাগজে খবর পড়ে গভীর বিশ্লষণ করে তা বুঝি । পশ্চিমবঙ্গেকে কলোনি মানাতে চায় পশ্চিমা ভারতীয়রা।

অন্যান্য খবর