× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ২২ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার
কলকাতা কথকতা

কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরাও করার আহ্বান মমতার, ক্ষুব্ধ বিজেপি কমিশনে

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(১ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ৮, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৯:৩৬ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট: ৫:২৭ অপরাহ্ন

যেখানে সি আর পি এফ আপনাদের ভোট দিতে বাধা দেবে, সেখানেই একটা গ্রুপে ওদের ঘেরাও করে রাখুন, অন্য গ্রুপ গিয়ে ভোট দিয়ে আসুন। ভোট দেয়ার অধিকার নাগরিকদের মৌলিক অধিকার। কেন্দ্রীয় বাহিনী তাতে বাধা দিতে পারে না। কোচবিহারের জনসভায় তৃণমূল সুপ্রিমো ও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এই আহ্বান জানানোর পর কলকাতায় ক্ষুব্ধ বিজেপি নির্বাচন কমিশনের কাছে নালিশ জানিয়েছে যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আইন শৃঙ্খলা ভাঙার চেষ্টা করছেন,  তার বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হবে না। মমতা বিশেষ করে মেয়েদের উদ্দেশ্যে বলেছেন- মা বোনেরা, আপনাদের ভোট দিতে ভয় দেখানো হচ্ছে। সি আর পি এফ ভয় দেখাচ্ছে। বিজেপিকে ভোট দিতে বলছে। আপনারা ভয় পাবেন না।
যাকে ইচ্ছা তাকে ভোট দেয়ার অধিকার আপনার আছে। তাই ভোট দিন নির্ভয়ে। মমতা অভিযোগ করেন যে, গুজব ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। যেখানে ভোট, সেখানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। এই গুজবের কোনো ভিত্তি নেই।  ১৪৪ ধারা আছে কেবল পোলিং বুথের ২০০ মিটারের মধ্যে। সুতরাং দল বেঁধে ভোট দিতে যাওয়ায় কোনো বাধা নেই।  মমতা বলেন, তাই বলছি ভোট দিতে যান যুথবদ্ধ হয়ে। কেন্দ্রীয় বাহিনী ভয় দেখালে বা বাধা দিলে ওদের ঘেরাও করুন। এক দল ঘেরাও করে রাখুন। অন্য দল ভোট দিয়ে আসুন। এই দলটি ফিরে ঘেরাও-এ বসুন। অন্যরা ততক্ষন ভোট দিয়ে আসুন। এই কৌশল নিন। রাজ্য বিজেপি মমতার এই আহ্বানে অশনি সংকেত দেখছে। তাদের আশংকা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এই আহ্বানের পর বাকি পাঁচটি পর্বের নির্বাচনে রক্তগঙ্গা বইতে পারে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর