× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

করোনায় মারা গেলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের ডিজি

অনলাইন

অনলাইন ডেস্ক
(১ মাস আগে) এপ্রিল ১০, ২০২১, শনিবার, ১০:৩৪ পূর্বাহ্ন

করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. এ কে এম রফিক আহাম্মেদ (৫৫)। আজ ভোর রাত সোয়া ৪টায় রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ হাসপাতালে তিনি মারা যান (ইন্নালিল্লাহি..রাজিউন)। পরিবেশ অধিদপ্তরের পিআরও মো. রিয়াজুল ইসলাম এ তথ্য জানান।
ড. এ কে এম রফিক আহাম্মেদ ২০১৯ সালের ২২ মে মহাপরিচালক হিসেবে পরিবেশ অধিদফতরে যোগদান করেন। ড. আহাম্মেদ ১৯৯১ সালে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস (প্রশাসন) ক্যাডারে কর্মজীবন শুরু করেন এবং গত ২৭ বছরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
শাজিদ
১১ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ৫:৩০

ইন্নালিল্লাহে ওয়াইন্না ইলাইহি রাজিউন।

MD. BILLAL HOSSAIN
১১ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ১০:৩২

ইন্নালিল্লাহে ওয়া---রাজেউন'. May Allah accept him Jannatul Ferdaous. Ameen. ** ** Other information, this virus couldn't be staying if we are fair. Please we should fair.

Mahmud
১০ এপ্রিল ২০২১, শনিবার, ২:৩৩

গত বছর প্রায় একই সময়ে যখন করোনার প্রথম ঢেউ আসে , সরকার তেমন কিছু না করলেও করোনার ভয়াবহতা কম হয় , আমরা অনেক কম আক্রান্ত হই এবং মৃত্যুও কম ঽয় । আমরা বুঝে হোক বা না বুঝে হোক সেটার পুরো কৃতিত্ত দেই দেশের প্রধান মন্ত্রীকে । মন্ত্রীদের মুখে প্রশংসার ফেনা উঠতে থাকে । কিন্তু সবাই আল্লাহকে শুকরিয়া করতেও ভুলে যাই । এবারের করনোরার দ্বিতীও ঢেউ সেটার প্রতিশোধ কি না বুঝতে পারছি না ।

ম নাছিরউদ্দীন শাহ
৯ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ১০:২৬

ইন্নালিল্লাহে ওয়া---রাজেউন'প্রতিদিন বিশ্বে ১৩/১৪ হাজার মানুষ মৃত্যু মধ্য দিয়ে লক্ষ লক্ষ আক্রান্তের মাঝে কি শিক্ষা হচ্ছে আমাদের?? কি শিক্ষা হচ্ছে রাষ্ট্রের ক্ষমতাবানদের?এই মৃত্যু কি অনিবার্য ছিল দেশের ভিআইপি বিত্তশালীদের মৃত্যুর শিরোনাম হচ্ছে? শ্রমজীবী দিন মজুর সুইফার রিক্সাটেক্সী ড্রাইভার সাধারণ মানুষ গুলো অসাধারণ নিরাপদে এদের মাক্স নেই স‍্যানিটাইজার নেই ভাইরাসের আক্রান্তের নিরাপত্তাব্যবস্থা নেই বললেই চলে। এই বিশালসংখ্যক জনগোষ্ঠীকে. কে নিরাপত্তা দিচ্ছেন??যদি এই শ্রেণি আক্রান্ত হতেন ব্রাজিলের চায়তেও ভয়ংকর পরিস্থিতি হতো বাংলাদেশের। মৃত্যুর মধ্যে শিক্ষা কেও নেয় না পকৃতির গজব আজাব অদৃশ্য ভাইরাস আজকের সুস্থ মানুষ কয়েক দিনই মৃত্য। এই ভাইরাসের মালিক কে?????? বলুন।বিজ্ঞানীদের গবেষণায় বানরের শরীর থেকে উৎপত্তি। তাই যদি বিজ্ঞানের গবেষণা হয়। মিলিয়ন ডলার প্রশ্ন বানরের শরীরে ভাইরাসের সৃষ্টিকর্তা কে???। দেশের শিষ্য স্থানীয়দের মাঝেই কেন ভাইরাসের আক্রমণগুলো হচ্ছে? আর কার কার নাম লিষ্টে আছে জানিনা। আল্লাহর দরবারে তুওবা ক্ষমা প্রার্থনা করুন। দুষক্রটি স্বীকার করুন রাজা বাদশাহ উজির নাজির সেনাপতি সাবধান। কেও নিরাপদ নয়।

অন্যান্য খবর