× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

নিউমার্কেটে গৃহকর্মী, সবুজবাগে অজ্ঞাত নারীর লাশ উদ্ধার

দেশ বিদেশ

স্টাফ রিপোর্টার
১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

 থাকা-খাওয়া বাদে মাত্র ১ হাজার টাকা বেতনে রাজধানীর বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের শিক্ষিকা ফারজানা ইসলামের বাসায় গৃহকর্মীর কাজ নেয় লাইলি আক্তার (১৬) নামে এক কিশোরী। মাত্র ৮ মাস আগে কাজে যোগদান করার পরেই তার উপর নেমে আসে পাশবিক নির্যাতন। ঠুনকো কারণে পা থেকে মাথা পর্যন্ত মধ্যযুগীয় পন্থায় নির্যাতন করা হয় লাইলিকে। যার ফলে অকালেই মুত্যুর কোলে ঢলে পড়তে হয়েছে এ কিশোরীকে। গত শনিবার বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের একটি আবাসিক ভবন থেকে লাইলির লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। লাইলির সমস্ত শরীরে ভয়াবহ আঘাতের চিহ্ন থাকায় পুলিশ ও স্বজনদের ধারণা, পিটিয়ে ও বিভিন্ন নির্যাতনের ফলে মৃত্যু হয়েছে লাইলির। এ ঘটনায় ইতিমধ্যে অভিযুক্ত গৃহকর্ত্রী ফারজানার ইসলামকে গ্রেপ্তার করেছে নিউমার্কেট থানা পুলিশ। ফারজানা বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষিকা।

এদিকে, রাজধানীর সবুজবাগের শাহীবাগ ব্যাংক কলোনি থেকে কাঁথা দিয়ে মোড়ানো এক অজ্ঞাত নারীর (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পুলিশের ধারণা, তাকে ধর্ষণের পর হত্যা করা হয়েছে।
পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুরের চন্দ্রগঞ্জ থানার চন্দ্রপুর গ্রামের মৃত সিরাজ মিয়ার মেয়ে লাইলি। বর্তমানে নিউমার্কেটের বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক স্কুল শিক্ষিকা আবাসিক ভবনের ১/১-এইচ নম্বর বাসার চতুর্থ তলায় থাকতেন। লাইলির মা শ্যামলা বেগম ঢামেক হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, গত ৮ মাস আগে তাকে একই গ্রামের শিক্ষিকা ফারজানা ইসলামের এক ফুফু’র মাধ্যমে ওই বাসায় কাজের জন্য দেয়া হয়। মাসে থাকা-খাওয়াসহ হাত খরচ হিসেবে ১ হাজার টাকা দেয়ার কথা ছিল। তবে এ যাবৎকালে তাকে এক টাকাও দেয়নি। তিনি জানান, সর্বশেষ ২ সপ্তাহ আগে লাইলির সঙ্গে কথা হয় তার। এর আগে গত ৮ মাসে তার সঙ্গে কথা হয়েছিল মাত্র কয়েকবার। তবে লাইলি যখনই তার সঙ্গে কথা বলতো তখন পাশে দাঁড়িয়ে থাকতো ফারজানা। দুই তিন মিনিটের বেশি কথা বলতে দিতোনা তাকে। এজন্য তার উপর যে এই নির্যাতন করা হতো সেগুলোর কিছুই বলার সুযোগ পেতোনা সে। ২ মাস আগে লাইলিকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে গেলেও তখনো তার সঙ্গে লাইলিকে দেখা করায়নি ফারজানা। নিহত লাইলির দূর সম্পর্কের চাচাতো ভাই নুরুল ইসলাম বলেন, লাইলিকে নির্যাতন করে মেরে ফেলা হয়েছে। শনিবার রাত ৯টার দিকে নিউমার্কেট থানার ওসি’র মাধ্যমে আমরা লাইলির মৃত্যুর খবর পাই। পরে রাতেই আমরা ঢাকায় আসি। খুনির কঠোর বিচার চাই আমরা। ২ ভাই ৩ বোনের মধ্যে সবার ছোট ছিল লাইলি। তার মা শ্যামলা খাতুন ভিক্ষাবৃত্তি করেন। আর তার বাবা সিরাজ মিয়া কয়েক বছর আগে মারা গেছেন। অভাবের কারণেই তাকে গৃহকর্মীর কাজে দেয়া হয়েছিল বলে জানায় স্বজনরা।
এ বিষয়ে নিউমার্কেট থানার এসআই আতিকুল বিশ্বাস মুকুল মানবজমিনকে জানান, চতুর্থ তলার বাসাটির গৃহকর্ত্রী বীরশ্রেষ্ঠ নূর মোহাম্মদ পাবলিক স্কুল অ্যান্ড কলেজের হিসাববিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষিকা ফারজানা ইসলামের বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতো লাইলি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, আঘাতের কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে। এ ঘটনায় লাইলির মা থানায় একটি হত্যা মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত শিক্ষিকাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, ময়নাতদন্তের জন্য লাইলির লাশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল (ঢামেক) মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।
গতকাল দুপুরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে তার মৃতদেহের ময়নাতদন্ত করা হয়। পুলিশ মৃতদেহের সুরতহাল প্রতিবেদনে উল্লেখ করেছে, লাইলির ঠোঁটের ডান পাশে ক্ষত, থুতনিতে কাটা দাগ, গলায় ক্ষতচিহ্ন, ডান কোমরে থেঁতলানো যখম, কোমরের পিছনে চামড়া উঠানো, দুই হাঁটু থেতলানো ও ছেলা ছিল। হাঁটু থেকে পায়ের পাতা পর্যন্ত বিভিন্ন অংশে গরম পানি দিয়ে ঝলসানো ও ফোসকা পড়া।
এদিকে, রাজধানীর সবুজবাগের শাহীবাগ ব্যাংক কলোনি থেকে কাঁথা দিয়ে মোড়ানো এক অজ্ঞাত নারীর (৩৫) লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। লাশটির মুখম-ল পলিথিন দিয়ে মোড়ানো ছিল। গত শনিবার শাহীবাগ ব্যাংক কলোনি ৯২/১ নম্বর ৪তলা বাসার তৃতীয় তলা থেকে ওই নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। পরে ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত উদ্ধার করেছে সিআইডি’র ক্রাইম সিন ইউনিট। ওই ফ্ল্যাটটির কেউ ওই নারীর পরিচয় শনাক্ত করতে না পারলেও পুলিশের প্রাথমিক ধারণা, ধর্ষণের পর ওই ভবনের ভেতরেই এ হত্যাকা-ের ঘটনা ঘটিয়েছে দুর্বৃত্তরা।
এ বিষয়ে সবুজবাগ থানার এসআই প্রীয়তোষ চন্দ্র দত্ত মানবজমিনকে জানান, ওই নারীর চোয়ালের মাংস কাটা ও গলার ডান পাশে ৩ ইঞ্চি পরিমাণ কাটা জখম রয়েছে। ওই ভবনের কেউ তার পরিচয় শনাক্ত করতে পারেনি। মৃতদেহের মুখম-ল পলিথিন দ্বারা ও সমস্ত শরীর পুরাতন একটি কাঁথা দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় ছিল। তার শরীরে কোনো পোশাক ছিল না। তিনি আরো জানান, তৃতীয় তলায় পাশাপাশি ৩টি ফ্ল্যাটে মালিকের দুই ছেলে থাকে। শনিবার বেলা ১২টার দিকে মালিকের ছোট ছেলে স্ত্রীকে নিয়ে বাইরে যায়। এরপর বেলা ৩টার দিকে বাসায় ফিরে তাদের ফ্ল্যাটের সামনে কাঁথা দিয়ে মোড়ানো নারীর মৃতদেহ দেখতে পায়। সঙ্গে সঙ্গে থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) মর্গে পাঠায় পুলিশ।
এরপর সিআইডি ক্রাইম সিন সেখানে গিয়ে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করে।
তিনি আরো জানান, ধর্ষণের পর তাকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। আর এই ঘটনাটি বাইরে নয়, সন্দেহ করা হচ্ছে ভবনের ভেতরেই তাকে হত্যা করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। এ ঘটনায় কাউকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়নি। তবে কয়েকজনকে নজরদারিতে রেখেছি।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর