× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ
আনাদোলুর রিপোর্ট

কাশ্মীর থেকে একদল বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাবে ভারত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) এপ্রিল ১২, ২০২১, সোমবার, ৯:০০ পূর্বাহ্ন

জম্মু-কাশ্মীরে অবস্থানকারী একদল বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা সম্প্রদায়ের কিছু মানুষের বিরুদ্ধে আনীত মামলা প্রত্যাহার করবে জম্মু সরকার। এর মধ্য দিয়ে তাদেরকে ফেরত পাঠানোর পথ তৈরি হচ্ছে। এ বিষয়ে উভয় দেশের সরকারের মধ্যে আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়েছে বলে এ খবর দিয়েছে তুরস্কের সরকারি বার্তা সংস্থা আনাদোলু। স্থানীয় খবরের উদ্ধৃতি দিয়ে এ তথ্য প্রকাশ করেছে আনাদোলু। এতে বলা হয়, ভারতের নিয়ন্ত্রণে থাকা জম্মু-কাশ্মীর সরকার এসব মামলা প্রত্যাহার করে তাদেরকে ফেরত পাঠাবে। তবে এর মধ্যে কতজন বাংলাদেশি ও কতজন রোহিঙ্গা রয়েছেন তা নিশ্চিত করে জানা যায়নি। রিপোর্টে বলা হয়েছে, ২০০৭ সাল থেকে ভারতের জম্মুতে অবস্থান করছেন কয়েক হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থী। ওই অঞ্চলে অতিরিক্ত এডভোকেট জেনারেল অসীম সাহনি আনাদোলুকে বলেছেন, এই গ্রুপের ব্যক্তিদের ‘অরিজিন’ সম্পর্কে বিস্তারিত প্রকাশ করতে পারে ভারত শাসিত কাশ্মীরের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিভাগ।
এ নিয়ে ওই মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করে আনাদোলু। কিন্তু তাতে ব্যর্থ হয়েছে তারা। সাহনিকে উদ্ধৃত করে কাশ্মীর নিউজ অবজার্ভার জানিয়েছে, প্রিভেন্টিভ ডিটেনশন আইনে অথবা ফরেনার্স অ্যাক্টের অধীনে কাউকে যদি আটক রাখা হয় তাহলে তাকে তার দেশে ফেরত পাঠাতে হলে আদালতের অনুমতি প্রয়োজন। তাই রাজ্যের প্রসিকিউটররা তাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রত্যাহার করবেন। এরপর তাদেরকে ফেরত পাঠানো হবে। সাহনি আরো বলেছেন, এসব মানুষকে ফেরত পাঠানো নিয়ে আনুষ্ঠানিকতা চূড়ান্ত করেছে ভারত ও বাংলাদেশ সরকার। গত মাসে জম্মু-কাশ্মীর সরকার প্রায় ১৫০ জন রোহিঙ্গা শরণার্থীকে আটক করে কাটুয়া জেলে রাখে। একজন পুলিশ কর্মকর্তা আনাদোলুকে বলেছেন, ওই সময় অবৈধ অভিবাসীদের শনাক্তকরণ প্রক্রিয়া ভারতের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে অনুমোদনের পর শুরু হয়েছে। রোহিঙ্গাদের প্রতিনিধি মোহাম্মদ হানিফ বলেছেন, উদ্ভূত ঘটনায় রোহিঙ্গা সম্প্রদায় হতাশাগ্রস্ত। তার মতে, জম্মুতে ৩৯টি শিবিরে অবস্থান করছেন কমপক্ষে ৬ হাজার রোহিঙ্গা শরণার্থী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ABDUL QAYUM
১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১:১৮

If people of any part of a country wants separation , will the country let it go? People of ctg. hilltracts formed Santi bahini for separation , did the bangladesh govt or the people allowed it? No country can allow it. Did pakistan allowed the separation? people of bangladesh was sucessful for two reason ---1. East pakista and west pakistan was separated by 1200 miles 2. I ndian govt . was supported bangladesh and finally indian army defeated pak army.

Mohamed Ali Bhuiyan
১১ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ১১:৫২

রোহিঙ্গাদের কে বাংলাদেশে কেন ফেরৎ পাঠাবে। প্রচন্ড মুসলিম বিদ্বেষী মোদী সরকার বার্মার অন্য ধর্মের লোকদের রাজনৈতিক আশ্রয় দিচ্ছে, কিন্তু নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিচ্ছে না। কারণ তারা মুসলমান।

Khaled
১১ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ৯:৩১

ভারতে যে সব রোহিংগা আছে তাদের বাংলাদেশ নেবে কেন??? কিসের ঠেকা তাদের এই দেশে আনার?? সব রোহিংগাদের কি বাংলাদেশেই আশ্রয় দিতে হবে?? এত দুর্বল হওয়া ঠিক না।

Nurun Nabi
১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৯:৩১

India leave Kashmir. Kashmiries want independence only.

অন্যান্য খবর