× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

৬২তেও উড়ু উড়ুু ম্যাডোনা, মেয়ের সঙ্গে জুটি

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(১ মাস আগে) এপ্রিল ১২, ২০২১, সোমবার, ১২:০৬ অপরাহ্ন

ম্যাডোনা (৬২)। এই একটি নামই যথেষ্ট তাকে পরিচয় করিয়ে দেয়ার জন্য। এর বাইরে পরিচয় হলো তিনি কুইন অব পপ বা পপস¤্রাজ্ঞী। ম্যাটেরিয়াল গার্ল হিসেবেও খ্যাত। দুই বছর আগে বয়স ৬০ বছর পেরিয়ে এলেও তার মধ্যে এখনও টিনেজ উদ্দামতা। টিনেজরা যা যা করতে পছন্দ করেন, যেমন উড়ু উড়ুু মন থাকে, তার মধ্যেও সেরকম। রাতারাতি তিনি প্রেমিক পাল্টান। নতুন প্রেমিকের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করেন।
সে প্রেমে কোনো বাধ থাকে না। কয়েকদিন পরে যখন আর তাকে ভাল লাগে না, তখন ছেড়া ত্যানার মতো ফেলে দেন। নিজের ঘরে রয়েছে গর্ভে ধারণ করা কন্যা লর্ডিস। তিনিও ২৪ বসন্তের যুবতী। যৌবন উপচে পড়ছে শরীর থেকে। লর্ডিসও প্রেমিক নিয়ে চুটিয়ে দিন গুজরান করছেন। করোনা মহামারিকালে তাকে দেখা গেছে প্রেমিক সঙ্গে নিয়ে সমুদ্রে জলকেলি করতে। সেখানে তার পরণে যে পোশাক ছিল তা ছাপার মতো নয়। কিন্তু এখন নতুন করে মা-মেয়ে একসঙ্গে খবরের শিরোনাম হয়েছেন একটি ছবির কারণে। ম্যাডোনা ও লর্ডিস একসঙ্গে সেলফি তুলে তা ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন। এ ছবিতে দু’জনের মধ্যে পার্থক্য করা খুব কঠিন। অকস্মাৎ দেখে কেউ বলে উঠবেন এরা বোন। কিন্তু আসলে তা নয়। তাদেরকে একই রকম দেখতে এই ছবিটি তুলেছেন মেয়ে লর্ডিস। সঙ্গে একটি বার্তা লিখেছেন- আপনার হৃদয় আপনার বাইরে বেরিয়ে এসে একই রকম এই দুটি পিসের সঙ্গে হাঁটছে।
উল্লেখ্য, সাবেক স্বামী গাই রিচির সঙ্গে ম্যাডোনার আরো একটি সন্তান রয়েছে। তার নাম রোকো (২০)। এ ছাড়া ম্যাডোনা দত্তক নিয়েছেন ডেভিড বান্দা (১৫), মার্সি জেমস (১৫), জমজ স্টেলা এবং এস্থারকে (৮)। সবচেয়ে বড় কন্যা লর্ডিসকে নিয়ে ম্যাডোনা থ্রিল করতে পছন্দ করেন। দু’জনেরই রয়েছে একই রকম নজরকাড়া ভ্রু। একই রকম দৈহিক গড়ন। তবে সেলফিতে সর্বশেষ মা-মেয়ে যে ছবি পোস্ট করেছেন তা নিয়ে নেতিবাচক মন্তব্যও আছে বেশ। ওই ছবিতে লর্ডিসকে দেখা যায় বগল উুঁচু করা। কিন্তু বগলের লোম পরিষ্কার করেননি তিনি। এর সমালোচনায় কেউ কেউ বলেছেন, তিনি খবরের শিরোনাম হতে এমনটা করেছেন। একজন তো লর্ডিসকে টার্গেট করে লিখেছেন, আপনাকে ছাড়াই ম্যাডোনা অনেক সময় ব্রিলিয়ান্ট। কিন্তু আপনিতো বগলের লোম প্রদর্শন করেছেন বিতর্কের কেন্দ্রে থাকার জন্য। এতে আপনি হেরেছেন। তিনি (ম্যাডোনা) জিতেছেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর