× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

কোভিড ভ্যাকসিনের আগে কি প্যারাসিটামল নেয়া যায়?

অনলাইন

সেবন্তী ভট্টাচার্য
(১ মাস আগে) এপ্রিল ১২, ২০২১, সোমবার, ৪:১২ অপরাহ্ন

বৃটেনে করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে নানা রকম প্রশ্ন সামনে আসছে। একদিকে যেমন অ্যাস্ট্রাজেনেকার ভ্যাকসিন নিয়ে রক্ত জমাট বাঁধার ঘটনা উদ্বেগ বাড়িয়েছে, তেমনই ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সী ব্যক্তিরা কবে এই ভ্যাকসিন পাবেন তা নিয়েও তৈরি হয়েছে ধোঁয়াশা।
এর মধ্যে একটি প্রশ্ন সামনে আসছে। সেটি হলো ভ্যাকসিন নেয়ার আগে কি প্যারাসিটামল জাতীয় ট্যাবলেট নেয়া যায়? সেই বিষয়টি আজ আপনাদের সামনে তুলে ধরবো-

এনএইচএসের পরামর্শ, ভ্যাকসিন নেয়ার পর ব্যথা অনুভব হলে পেইনকিলার বা প্যারাসিটামল গ্রহণ করা যেতে পারে। তবে ভ্যাকসিন নেয়ার আগেই এই জাতীয় ট্যাবলেটের প্রয়োজন নেই বলে জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। আমেরিকার সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রোটেকশন বা সিডিসি-র মতে, ভ্যাকসিন নেয়ার আগে প্যারাসিটামল খাওয়া একেবারেই উচিত নয়। অ্যাসোসিয়েট প্রেসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে সিডিসি-র বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, প্যারাসিটামল জাতীয় ওষুধ মানুষের ইমিউনিটি সিস্টেম বা অনাক্রম্যতার ওপর প্রভাব ফেলতে পারে।

কারণ ভ্যাকসিন প্রয়োগের সঙ্গে সঙ্গে কোভিড -১৯ ভাইরাসের সঙ্গে লড়ার জন্য শরীরে অ্যান্টিবডি তৈরি হতে শুরু করে। মানব শরীর তখন ভাইরাসের সঙ্গে নিরন্তর লড়াই করার জন্য প্রস্তুত হতে থাকে।
অক্সফোর্ডের অ্যাস্ট্রাজেনেকা ভাইরাস থেকে শুরু করে ফাইজার, মর্ডানা, নোভাভ্যাক্স সবকটি ভ্যাকসিন এইভাবেই কাজ করে। ভ্যাকসিন নেয়ার পর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া স্বরূপ হাতের মাসলে ব্যথা অনুভব হতে পারে।
ভ্যাকসিন নিতে যাওয়ার আগে সেরকম কোনও কড়া নিয়ম নীতি না থাকলেও , বিশেষজ্ঞরা আইবুপ্রুভিন জাতীয় ওষুধ খেতে বারণ করছেন। ভ্যানডারবিল্ট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর উইলিয়ম স্ক্যাফনার বলছেন, সেভাবে পরীক্ষিত না হলেও ভ্যাকসিন নেয়ার আগে শরীরে অনাক্রম্যতার ওপর প্রভাব ফেলে এমন ওষুধ থেকে দূরে থাকাই ভাল। এনএইচএস- এর সমীক্ষা বলছে, কোভিড ভ্যাকসিন নেয়ার পর অন্তত চারদিন মাথাব্যথার মত সমস্যা থাকে। তার থেকে বেশি সমস্যা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।
এছাড়াও ভ্যাকসিন নেয়ার জায়গাটি ছাড়া শরীরের অন্য কোনও জায়গায় যদি আঘাতজনিত ব্যথা অনুভব হয় তাহলেও চিকিৎসকের পরামর্শ নেয়া উচিত। এক-দুদিন জ্বর বা কম্পন অনুভূত হলেও চিন্তার কিছু নেই বলে জানিয়েছে এনএইচএস। তবে সমস্যা বাড়লে সময় নষ্ট না করে হাসপাতালে যাওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ওবাইদুল ইসলাম
১২ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৫:২৭

ভ্যাকসিন নেওয়ার পর ব্যাথা ও রক্ত জমাট বাধার ভয় কমাবার জন্য ভর পেটে এসপিরিন ট্যাবলেট খাওয়া যেতে পারে।

অন্যান্য খবর