× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

বিজরী এবার উদ্যোক্তা

বিনোদন

স্টাফ রিপোর্টার
১৪ এপ্রিল ২০২১, বুধবার

অভিনেত্রী ও নৃত্যশিল্পী হিসেবে বেশ সমাদৃত ও জনপ্রিয় বিজরী বরকতউল্লাহ। ক্যারিয়ার ও সংসার একসঙ্গেই সামলাচ্ছেন এই অভিনেত্রী। তবে সবকিছু ছাপিয়ে এবার উদ্যোক্তা হিসেবে আত্মপ্রকাশ ঘটেছে বিজরী বরকতউল্লাহ’র। শাড়ির ব্যবসা শুরু করেছেন তিনি। তবে সেটা অনলাইনে। নাম ‘মাই ক্লোসেস্ট স্টোরিস’। এই শাড়ির পেজটিতে একটু ভিন্নধর্মী ও ভালো মানের শাড়ি পাওয়া যাবে বলে জানালেন এই অভিনেত্রী। বিজরী বরকতউল্লাহ মানবজমিনকে বলেন, আমি আর আমার বন্ধু মিলে শাড়ির পেজটি খুলেছি সম্প্রতি।
এটি ছোট পরিসরে। তেমন কিছু না। ভালোলাগা থেকে চালু করা। মাইন্ড ডাইভার্টের জন্য এই ধরনের কিছু নিয়ে ব্যস্ত থাকা দরকার বলে মনে হচ্ছিল। এদিকে, লকডাউনের মধ্যে আপাতত কিছুদিন শুটিং বা অনুষ্ঠানে যোগ না দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। বিজরী বরকতউল্লাহ বলেন, এখন শুটিং বা অনুষ্ঠান করতে চাই না। কারণ যথেষ্ট ভুগেছি করোনা নিয়ে। আর চাচ্ছি না। শুটিংয়ে একদমই স্বাস্থ্যবিধি মানা যায় না। যেহেতু আমার বাসায় শ্বশুর-শাশুড়ি আছেন। তাই আমাদের অনেক সাবধানতা অবলম্বন করে চলতে হয়। সবশেষ গত মাসে দুটি ধারাবাহিক ও একটি অনুষ্ঠানে পারফরমেন্স করেছেন বিজরী বরকতউল্লাহ। একটি অনিমেষ আইচের ‘এখানে কেউ থাকে না’। অন্যটি ‘বাবা থাকে বাসায়’।
নৃত্য চর্চার প্রতি বিজরী বরকতউল্লাহ সবসময় গুরুত্ব দিলেও বাবার অনুপ্রেরণায় অভিনয়ে আসেন। ১৯৮৮ সালে বিটিভির ‘সুখের ছাড়পত্র’ নামের একটি নাটকে শখের বশে অভিনয় করেন। তারপর থেকেই অভিনয়ের প্রেমে পড়ে যান বিজরী। বাবা মোহাম্মদ বরকতউল্লাহ প্রযোজিত হুমায়ুন আহমেদ রচিত বিটিভি’র তুমুল জনপ্রিয় ধারাবাহিক নাটক ‘কোথাও কেউ নেই’ ছিল বিজরীর ক্যারিয়ারের টার্নিং পয়েন্ট।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর