× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

'দেশে এহন সবাই গরীব, গরীবের হক মারার সুযোগটা কই?'

অনলাইন

তারিক চয়ন
(১ মাস আগে) এপ্রিল ১৪, ২০২১, বুধবার, ৫:২১ অপরাহ্ন

সরকারি বিপণন সংস্থা ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) সাধারণ মানুষের জন্য তুলনামূলক কম দামে পণ্য বিক্রি করছে। চলমান লকডাউনের মধ্যেও থেমে নেই তাদের কার্যক্রম। মানুষ এসব পণ্য টিসিবির পরিবেশকদের ভ্রাম্যমাণ ট্রাক থেকে কিনতে পারছেন।

বুধবার দুপুরে সরেজমিনে দেখা যায়, রাজধানীর মতিঝিলে সোনালী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয়ের ফটকের পাশে টিসিবির ট্রাকের সামনে মানুষের তুমুল ভিড়। এক দেখাতেই বুঝা যায়, সেখানে শুধু সাধারণ মানুষই নন, অনেক অবস্থাপন্ন ঘরের মানুষও স্বল্পমূল্যে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয় করতে লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

পাশেই বাগেরহাট থেকে আগত রিক্সাচালক মাহমুদ ট্রাফিক পুলিশ সুলতানের কাছে অভিযোগ করছিলেন, ‘ভাই ঐ দেখেন জামাই-বৌ দেড় লাখ টাকার হোন্ডা থাইকা নাইম্যা সব লইয়া যাইতাসে। গরীবের হক মারতাসে।‘

মাহমুদের অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলো। টিসিবির ট্রাকের সামনেই রাখা একটি বিলাসবহুল মোটরসাইকেল। একজন পুরুষ এবং একজন নারী মোটরসাইকেলের পণ্য রাখার বাক্সতে ভরে, এবং আলাদা একটি বস্তাভরে বিভিন্ন পণ্য নিয়ে যাচ্ছেন। রিক্সাচালক মাহমুদের অভিযোগ সম্পর্কে জানতে চাইলে পুরুষটি বললেন, ‘কি করবো ভাই! দেশে এখন সবাই গরীব।
গরীবের হক মারার সুযোগটা কই?’

তার সাথে আলাপচারিতার ফাঁকেই চোখে পড়ে- একটি মাইক্রোবাস ট্রাকের সামনে হঠাৎ থেমে গেলো, একজন গাড়ির দরজা খুলে দিলো। ট্রাকের সামনে থেকে দুজন ব্যক্তি পণ্যভর্তি চারটি বস্তা চোখের পলকে তাতে উঠিয়ে দিলে দরজা বন্ধ করে মাইক্রোবাসের লোকটি গাড়ি চালু করে সাঁই করে চলে যান।

এছাড়াও, টিসিবির লাইনে দাঁড়ানো লোকজনের মধ্যে একটি জাতীয় দৈনিকের সাংবাদিককেও পাওয়া গেলো। 'কি করবো ভাই! পেট চলে না', তার সাবলীল উত্তর।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
এ,টি,এম,তোহা
১৪ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ৬:২১

চারদিকে তাকিয়ে উপজেলা গেইটে দাঁড়ানো ট্রাকের পাশে লাজুক মুখে আমিও দাঁড়িয়েছিলাম। ইচ্ছে ছিল কিছু কিনি। কিন্তু দেখলাম সেখানে দাঁড়ানো লোকজন আমাকে দেখে অভিযোগ দেয়া শুরু করলো। বুঝলাম, ওরা আমাকে ওদের চেয়ে একধাপ উপরে এগিয়ে রেখেছে। কষ্ট লুকিয়ে ফিরে আসি।

Shobuj Chowdhury
১৪ এপ্রিল ২০২১, বুধবার, ৫:৩৬

After a long birthday celebration, people lost some money and become temporarily cash free citizen. They will come back with digital cash and contribute in 3d development. Stay calm! Stay tuned!! New directions are coming soon!!!

অন্যান্য খবর