× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ
কলকাতা কথকতা

বাংলা নতুন বছর এল কোভিডের নিরানন্দকে সঙ্গে নিয়ে, কলকাতায় যেন খেলা ভাঙার খেলা

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(১ মাস আগে) এপ্রিল ১৫, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৯:৫১ পূর্বাহ্ন

নিরানন্দের কুয়াশায় ঢাকা বাংলা নতুন বছরকে স্বাগত জানাল কলকাতা মুখ ভার করে। কালান্তক করোনার ভ্রুকুটি আর ভোটের সন্ত্রাস... কোথায় গেল সেই প্রভাতফেরি, কালীঘাটে গণেশ বন্দনা, খেরোর খাতা পুজো, মিষ্টিমুখ, দুপুরে বাংলা খাবারের দোকানগুলিতে ইলিশ পাতুড়ি, কই মাছের হরগৌরী কিংবা বাসন্তী পোলাও খাবার ভিড়? হালখাতার আয়োজন তাও তো প্রায় নেই। বাঙালি মনখারাপ করে ডিজিটাল নববর্ষ কাটাচ্ছে। হোয়াটসঅ্যাপে নতুন বছরের শুভেচ্ছার বন্যা বয়ে যাচ্ছে। বাংলার গভীর, গভীরতর অসুখ এখন। নববর্ষ এল পরপর দুবছর মন খারাপের বাঁশি বাজিয়ে। বাংলা নতুন বছরে কলকাতার অন্যতম আকর্ষণ বাংলাদেশের পর্যটকরা। করোনার কারণে একবছরের বেশি তারা গরহাজির।
মাছি তাড়াচ্ছে মির্জা গালিব স্ট্রিট-এর মোরগ পোলাওয়ের রেস্তোরাঁ। শাড়ির দোকান। বাজারে গেলেই বোঝা যাচ্ছে বাঙালি করোনার কারণে বাজার বিমুখ। খেত থেকে তুলে আনা পাট শাক পড়েই থাকছে। জিওল মাছগুলি অ্যালুমিনিয়ামের বনেতের কানায় খাবি খাচ্ছে। ফুলের দোকানে গোলাপ, রজনীগন্ধা শুকিয়ে যাচ্ছে। মনখারাপের এই নববর্ষ। চারদিকে ভোটের হাওয়া মনে করিয়ে  দিচ্ছে, এ দিন নয় ফুল খেলার। আর ষাট ন্যানোমিটারের ভাইরাসটি? নতুন বছরের  খেলা ভাঙার এই খেলায় সে যে ম্যান অব দ্য ম্যাচ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর