× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

এরদোগানকে যে কথা দিলেন ইমরান খান

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৪ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ১৬, ২০২১, শুক্রবার, ১২:১২ অপরাহ্ন

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তায়্যিপ এরদোগানকে কথা দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। টেলিফোনে তিনি বললেন, আফগানিস্তানে টেকসই শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার জন্য সম্ভাব্য সব রকম সহযোগিতা দেবে পাকিস্তান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের অফিস থেকে দেয়া এক বিবৃতিতে এমনটাই জানানো হয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন এক্সপ্রেস ট্রিবিউন। এতে বলা হয়েছে, বৃহস্পতিবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগানের সঙ্গে তার টেলিফোনে কথা হয়েছে। এ সময় দুই নেতা পারস্পরিক স্বার্থ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে আলোচনা করেন। সব ক্ষেত্রে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক আরো জোরদারের ওপর গুরুত্ব দিয়ে আলোচনা করেন। বিবৃতিতে বলা হয়েছে, আঞ্চলিক প্রেক্ষাপটে ইমরান খান আফগানিস্তানে রাজনৈতিক সমাধানের ওপর গুরুত্ব আরোপ করেছেন।
সম্প্রতি আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। ইমরান খান বলেছেন, আফগানিস্তানে শান্তি প্রতিষ্ঠায় পূর্ণ সমর্থন দেবে পাকিস্তান। সেখানে যুক্তরাষ্ট্র ও তালেবানদের মধ্যে যে শান্তিচুক্তি হয়েছে এবং আফগানিস্তান নিয়ে যেসব সমঝোতা প্রচেষ্টা নেয়া হয়েছে তাতে সমর্থন থাকবে পাকিস্তানের। আফগানিস্তানে বহুপক্ষীয় সমঝোতা প্রচেষ্টাকে তিনি ঐতিহাসিক এক সুযোগ হিসেবে আখ্যায়িত করেন। এই সুযোগকে ব্যবহার করে আফগানিস্তানের নেতাদের সবাইকে এক সঙ্গে নিয়ে ব্যাপকভিত্তিক এবং বৃহত্তর রাজনৈতিক সমাধান বের করা উচিত। এক্ষেত্রে তুরস্কের ভূমিকার প্রশংসা করেন ইমরান খান।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
nasir uddin
১৭ এপ্রিল ২০২১, শনিবার, ১:৪৪

Yet another defeat for USA. During last 70 years, they had chain of defeats starting from Korea, then Vietnam, Laos and Cambodia and recent ones are defeats in Iraq and Afghanistan. One more decisive defeat is pending and that is in the Persian Gulf with Iran. This defeat is going to be the final one for the US. Their myth is going to be shattered.

Polash
১৬ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ১:৩১

কেবল আমেরিকান নয় সকল বিদেশী সেনা প্রত্যাহারকে সবাই স্বাগত জানিয়েছে। কেবল ভারত উদ্বেগ জানিয়ে আফগািনস্তানে বহিরাগত সেনাদের মাধ্যমে নিজেরও শোষন বৈধ করতে চায়। এটাই কি ভারতের মহত কাজ নয়?

Nuton
১৬ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ৪:০৮

Killer Wild ANIMAL- DONALD TRUMP can’t just give away, like SANTA, “Arab Lands” to BUTCHER KILLER GRABBER “ISRAEL BENJAMIN” SUCKER!

sdd
১৬ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ১২:৪৭

আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সৈন্যের প্রত্যাবর্তন পাকিস্তানের জন্য আন্তর্জাতিক বিশ্বে একটি বিপর্যয় তৈরী করতে যাচ্ছে। মূলত মার্কিন সৈন্যের এই উপস্থিতির জন্য আমেরিকাকে পাকিস্তানের উপর নির্ভরশীল করে রেখেছিল, ফলে বিভিন্ন আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞা থেকে এই সন্ত্রাসী দেশটিকে বাচিয়েছিল আমেরিকা। এখন আর পাকিস্তানে আমেরিকার কোন বড় স্বার্থ না থাকায় আগামীতে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে একের পর এক প্রতিকূলতার সম্মুখীন হতে হবে দেশটিকে। তুরস্ক, চীন ও পাকিস্তানের নতুন বন্ধু রাশিয়া দেশটিকে বাঁচাতে পারবে না।

Mohammed
১৫ এপ্রিল ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১১:৪৩

All Muslims countries must need United for their own interests.

অন্যান্য খবর