× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

হেফাজত নেতা শরিফউল্লাহ কারাগারে

অনলাইন

স্টাফ রিপোর্টার
(৪ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ১৬, ২০২১, শুক্রবার, ৬:৫৬ অপরাহ্ন

রাজধানীর যাত্রাবাড়ী থানায় দায়েরকৃত মামলায় হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় সহ-প্রচার সম্পাদক মুফতি শরিফউল্লাহর জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত। গতকাল একদিনের রিমান্ড শেষে তাকে আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা। অপরদিকে তার আইনজীবী জামিনের আবেদন করেন। উভয়পক্ষের শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরা তার জামিন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
এরআগে ১৪ই এপ্রিল তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় পুলিশকে হত্যার উদ্দেশ্যে করা বিশেষ ক্ষমতা আইনের মামলায় সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে সাতদিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন যাত্রাবাড়ী থানার পরিদর্শক আয়ান মাহমুদ। শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম আবু সাঈদ তার একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ১৩ই এপ্রিল সন্ধ্যায় যাত্রাবাড়ীর মীর হাজিরবাগ এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপি’র গোয়েন্দা (ডিবি) ওয়ারী বিভাগ।
উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ৫ই মে ঢাকা অবরোধ করে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীরা।
পরের দিন ৬ই মে ভোর ৫টা ৫ মিনিটের দিকে হেফাজত নেতাকর্মীরা যাত্রাবাড়ী থানার ডব্লিউ জেট ফিলিং স্টেশনের বিপরীত দিকে রাস্তার ওপর কদমতলী থানার কাজে ব্যবহৃত ঢাকা মেট্রো-ঠ- ১৪-১৭০৫ পুলিশ পিকআপে অগ্নিসংযোগ করে পুলিশের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে পালিয়ে যায়। পরে ওই দিন সকাল ৯টার দিকে যাত্রাবাড়ী থানার রায়েরবাগস্থ ইউনাইটেড পেট্রোল পাম্পের সামনে পৌঁছা মাত্রই আসামি শরীফউল্লাহসহ অন্য আরো ৪০০-৫০০ জন দুষ্কৃতকারী হঠাৎ করে ট্রাকটির ওপর বেআইনিভাবে মারমুখী হয়ে গাড়ির ওপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি করে এবং গাড়িতে অবস্থানকারী ফোর্সদের হত্যার উদ্দেশ্যে ইট-পাথর, লোহার রড, পাইপ ইত্যাদি দিয়ে আঘাতের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশ সদস্যরা পালিয়ে প্রাণরক্ষা করেন। এ ঘটনায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে যাত্রাবাড়ী থানায় একটি মামলা হয়। মামলায় এজাহারনামীয় আসামি মুফতি শরিফউল্লাহ।
গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, মুফতি শরীফউল্লাহ হেফাজতের কেন্দ্রীয় সহ-প্রচার সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি ঢাকা মহানগর কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক পদে দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি ও মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দেশে আসা নিয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারা দেশের বিভিন্ন এলাকায় ব্যাপক তা-ব চালায় হেফাজতে ইসলাম। সম্প্রতি হেফাজতের কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হকের রিসোর্টকা-ের পর একে একে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মীদের গ্রেপ্তারে অভিযান শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
Faruque Ahmed
১৭ এপ্রিল ২০২১, শনিবার, ১১:২০

এটি মুসলিম ও অমুসলমান ইস্যু ছিল না, সমস্ত অমুসলমান শত্রু নয়। খুব কম লোকই মুসলমানদের প্রতি সহিংসতা চালাচ্ছে। মুসলিম যদি আওয়াজ না দেয়, এটা অপরাধ। তবে আপনি গুলি কর।,আপনি তাদের হত্যা কর। তারা হতাশ হয়ে পড়েছিল এবং ভাইকে হারানোর পরে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে পারে না, আমাদের এক চোখের মত মন্তব্য করা উচিত নয়, তাদের হত্যা করার আগে তারা কেবল মিসিলই করত.

Ruhul Amin Tipu
১৬ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ৯:২৮

Shune Kushi Koilam.Moulobadir Poton Houk.Moulobadi Mukto Sunar Bangla Houk

আনিস উল হক
১৬ এপ্রিল ২০২১, শুক্রবার, ৭:৫৬

অমুসলমান একজন সরকার প্রধানের আগমন নিয়ে ধর্মীয় আবেগে মানুষ কে বিভ্রান্ত করে রাস্তায় নামিয়ে নৈরাজ্যের সৃষ্টি করা কোন সমর্থনযোগ্য রাজনীতি নয়।আমাদের মনে রাখতে হবে পৃথিবীতে ৭০০ কোটি মানুষের মধ্যে ৫০০ কোটিরও অধিক সংখ্যক মানুষ কিন্তু অ-মুসলিম।

অন্যান্য খবর