× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

সমালোচনার মুখে শরনার্থী অনুমোদনের সীমা বাড়াচ্ছেন বাইডেন

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৩ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ১৮, ২০২১, রবিবার, ৫:১৬ অপরাহ্ন

সমালোচনার মুখে শরণার্থী অনুমোদনের বিষয়টিতে নিজের অবস্থান পাল্টেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি জানিয়েছেন শরণার্থী অনুমোদনের সীমা বাড়ানো হবে। এর আগে বাইডেনের সমালোচনা শুরু পর শুক্রবার হোয়াইট হাউসের প্রেস সচিব জেন সাকি আভাস দিয়েছিলেন যে, প্রেসিডেন্ট এই সংখ্যা বাড়াতে পারেন। অতঃপর ডেমোক্রেটিক সতীর্থদের সমালোচনার মুখে এই নীতি প্রত্যাহারের ঘোষণা দিয়েছেন তিনি। হোয়াইট হাউসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বাইডেন আগামী ১৫ মে বাকি অর্থ বছরের জন্য শরণার্থীর সংখ্যা চ‚ড়ান্তভাবে বৃদ্ধি করবেন। বাইডেন একটি নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করেছিলেন যেখানে সাবেক প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের দেয়া শরনার্থী প্রবেশের সংখ্যা ১৫ হাজারে সীমিত রাখার বিষয়টি অনুমোদন করা হয়।
জাতিসংঘের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বিশ্বজুড়ে প্রতিবছর আট কোটি শরণার্থী তৈরি হয়। যার ৮৫ শতাংশকেই আশ্রয় দিতে হয় পশ্চিমা গণতান্ত্রিক আধুনিক রাষ্ট্রগুলোকে। বিশ্বের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে যুক্তরাষ্ট্রে যে ১৫ হাজার শরণার্থী অনুমোদন পাবেন, বাইডেন প্রশাসন তার একটা পরিকল্পনা করেছেন।
এতে দেখা গেছে, আফ্রিকা থেকে সাত হাজার, পূর্ব এশিয়া থেকে এক হাজার, ইউরোপ ও মধ্য এশিয়া থেকে দেড় হাজার, লাতিন আমেরিকা ও ক্যারিবীয় অঞ্চল থেকে তিন হাজার, মধ্যপ্রাচ্য ও দক্ষিণ এশিয়া থেকে দেড় হাজার এবং অনির্ধারিত অঞ্চল থেকে এক হাজারজনকে নির্ধারণ করা হয়েছে। ফেব্র“য়ারিতে মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরে এক ভাষণে আগামী অর্থবছরে শরণার্থী সংখ্যা বাড়িয়ে এক লাখ ২৫ হাজার করার প্রতিশ্র“তি দিয়েছিলেন জো বাইডেন।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর