× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

গাজীপুরে ‘সামান্য ইফতার’র অসামান্য উদ্যোগ

বাংলারজমিন

স্টাফ রিপোর্টার, গাজীপুর থেকে
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

গাজীপুরের একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের আয়োজনে অভিনব পদ্ধতিতে দুস্থ ও অসহায় মানুষকে প্রতিদিন দেয়া হচ্ছে ইফতারের প্যাকেট। যেখানে কোনো আনুষ্ঠানিকতা নেই, হাতে তুলে দেয়ার কেউ থাকেন না। গ্রহীতারা নিজেরা নিজেদের মতো করে হাতে তুলে নিয়ে যান। ‘সামান্য ইফতার’ নাম দিয়ে অভিনব এই আয়োজনটি করছে গাজীপুর সদরের রাজেন্দ্রপুর এলাকার ইকবাল সিদ্দিকী এডুকেশন সোসাইটি। এর মূল উদ্যোক্তা ইকবাল সিদ্দিকী কলেজ এর প্রিন্সিপাল, শিশু সংগঠক, কৃষক-শ্রমিক-জনতা পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা ইকবাল সিদ্দিকী। তিনি বিগত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গাজীপুর-৩ আসন থেকে সংসদ নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছিলেন। প্রথম রোজা থেকে প্রতিদিন দুপুর গড়াতেই চারদিক থেকে নানা বয়সী লোকজন এসে বসছেন, কচিকাঁচা একাডেমির সামনের মাঠে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে সারি সারি পেতে রাখা চেয়ারে। আর নির্ধারিত সময়ে, নির্ধারিত স্থানে রেখে ইফতারের প্যাকেট নিজ হাতে একে একে নিয়ে যাচ্ছেন।
দরিদ্রদের হাতে প্যাকেট তুলে দিয়ে বাহবা নেয়ার জন্য দাঁড়িয়ে থাকেন না কোনো নেতা-শিক্ষক-কর্মকর্তা বা অন্য কোনো লোক। সেখানে কোনো ফটোসেশনও নেই। দেয়ার সময় কোনো ছবিও তোলা হয় না এখানে। নেই কোনো হুড়াহুড়ি, ধাক্কাধাক্কি। আয়োজকদের পক্ষ থেকে রান্না করা খিচুড়ি, সেদ্ধ ডিম, আর খেজুর ভর্তি প্যাকেট সারি সারি রেখে দেন তাকের মধ্যে। আর সেখান থেকেই দূরত্ব বজায় রেখে একে একে নিয়ে তৃপ্তির হাসি মুখে নিয়ে পরের দিন আবারো পাবার আশা নিয়ে বাড়ি ফেরেন দরিদ্র মানুষগুলো। অত্যন্ত সুশৃঙ্খল পরিবেশে অভিনব কায়দায় ইফতার দেয়ার বিষয়টি এলাকায় বেশ প্রশংসা পেয়েছে। আর গ্রহীতারা আলাদা ধরনের তৃপ্তিও সম্মানবোধ নিয়ে ঘরে ফিরছেন। করোনাকালীন স্থানীয় অভাবী ও অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে গত বছরের রমজান থেকে এই প্রতিষ্ঠানটি এমন অসামান্য আয়োজন শুরু করে। এ বছর রোজার কয়েকদিনে প্রতিদিনই প্রায় আড়াইশ’ প্যাকেট করে ইফতার দেয়া হচ্ছে। সামনের দিনগুলোতে হয়তো এই সংখ্যা আরো বাড়বে। এই ইফতার বিতরণ উপলক্ষে কোনো প্রচার নেই, আনুষ্ঠানিকতাও নেই। এলাকায় মুখে মুখে শুনেই দলবেঁধে ছুটে আসে অভাবী মানুষ গুলো। এই আয়োজনে এডুকেশন সোসাইটির স্কুল-কলেজের শিক্ষক- কর্মকর্তা- প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থী, তাদেরর পরিবারসহ অন্যদেরও সুযোগ রয়েছে ‘সামান্য ইফতার’ এ আর্থিক সহায়তা দিয়ে অংশ নেয়ার।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর