× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৩ মে ২০২১, বৃহস্পতিবার, ৩০ রমজান ১৪৪২ হিঃ

গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যা গণধোলাইয়ে হত্যাকারী নিহত

বাংলারজমিন

রামগঞ্জ (লক্ষ্মীপুর) প্রতিনিধি
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

লক্ষ্মীপুরের রামগঞ্জে প্রকাশ্যে নাসরিন আক্তার মৌসুমী নামের এক গৃহবধূকে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় ক্ষিপ্ত এলাকাবাসীর গণধোলাইয়ে মো. রাসেল মিয়া নামের এক হত্যাকারী নিহত হয়েছে। নিহত গৃহবধূ কাতার প্রবাসী সফি উল্যাহর স্ত্রী ও রাসেল মিয়া একই এলাকার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে। গতকাল সকালে রামগঞ্জ উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের জাফরনগর এলাকার কাতার প্রবাসী সফিউল্লাহর বসতঘরে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে কাতার প্রবাসী সফিউল্যাহর স্ত্রী নাসরিন আক্তার মৌসুমীর সঙ্গে রাসেল মিয়ার সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্ক ছিল। গত কয়েকদিন ধরে নাসরিন আক্তার মৌসুমী ছেলেসন্তান ও সংসারের কথা চিন্তা করে এ পথ থেকে বেরিয়ে আসতে চাচ্ছিলেন। এর জেরে গতকাল সকালে রাসেল মিয়া ও আনোয়ার মোল্লাসহ দুজন নাসরিন আক্তার মৌসুমীর বাড়িতে গিয়ে ঘরের দরজা খুলতে বলে। দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে রাসেল এলোপাতাড়ি কুপিয়ে নাসরিনকে গুরুতর আহত করে। পরে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে তাকে রামগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
এ সময় রাসেল মিয়াকে আটক করে গণধোলাই দেন স্থানীয়রা। পরে তাকেও গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে একই হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।
লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার ড. এএইচএম কামরুজ্জামান জানান, পরকীয়ার জের ধরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া এ ঘটনার সঙ্গে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা, সেটাও তদন্ত চলছে। তদন্তের পর আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। পাশাপাশি মামলার প্রস্তুতি চলছে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর