× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

রিমান্ডে হেফাজত নেতাদের কাছে যা জানতে চাওয়া হচ্ছে

শেষের পাতা

রুদ্র মিজান
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার

চাপে পড়েছে হেফাজতে ইসলাম। একদিকে লকডাউন, অন্যদিকে গ্রেপ্তার অভিযান। সবমিলিয়ে দিশাহারা নেতাকর্মীরা। এই অবস্থায় কী করণীয় তা নির্ধারণ করতে জরুরি ভার্চ্যুয়াল বৈঠক করেছেন তারা। ইতিমধ্যে সারা দেশে দুই শতাধিক নেতাকর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করেছে দলটি। গ্রেপ্তার কেন্দ্রীয় নেতাদের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। ২০১৩ সালের ৫ই মে শাপলা চত্বরের ঘটনা থেকে শুরু করে সাম্প্রতিক সময়ে দেশব্যাপী চালানো তাণ্ডব সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাদের। ইতিমধ্যে এসব বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে বলে সংশ্লিষ্ট গোয়েন্দা কর্মকর্তারা দাবি করেছেন।
দেশব্যাপী চালানো তাণ্ডবে হেফাজতে ইসলামের সরকারবিরোধী মনোভাব পোষণকারী পৃষ্ঠা ২ কলাম ৪
কিছু নেতার সরাসরি ভূমিকা রয়েছে বলে গোয়েন্দারা তথ্য পেয়েছেন বলে দাবি করা হচ্ছে। এ ছাড়াও শাপলা চত্বরের সমাবেশ ও ঘেরাও কর্মসূচিতে সরকারবিরোধী এক ষড়যন্ত্র ছিল বলে দাবি করেছেন তারা। এতে হেফাজতে ইসলামের নেতাকর্মী ছাড়াও বিএনপি ও সমমনা দলের কিছু নেতা জড়িত ছিলেন বলে গোয়েন্দাদের কাছে তথ্য রয়েছে-এমনটি বলা হচ্ছে।
গোয়েন্দা সূত্র জানায়, গতকাল কয়েকজন নেতাকে একসঙ্গে জিজ্ঞাসাবাদ করেন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা। সরকারবিরোধী কার্যক্রমের নেপথ্যে বিশেষ কি উদ্দেশ্য, এসব বিষয়ে বারবার জানতে চাইলে হেফাজতের নেতৃবৃন্দ তা অস্বীকার করেছেন। তারা গোয়েন্দাদের প্রাপ্ত তথ্য অস্বীকার করে নিজেদের ইসলামের পক্ষের কর্মী হিসেবে দাবি করেন।
হেফাজত নেতা মাওলানা মামুনুল হকের রিসোর্ট কাণ্ড সম্পর্কে হেফাজতের নেতৃবৃন্দ জানিয়েছেন, তা একান্তই মামুনুল হকের ব্যক্তিগত বিষয়। তবে মামুনুল হকের এই ঘটনার পর হেফাজতের অনেকের মধ্যে অসন্তোষ সৃষ্টি হয়। মামুনুলের ব্যক্তিগত বিষয়ের দায় সংগঠন নিতে চায় না। তবে মামুনুল হক শরিয়া মোতাবেক দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন জেনেই হেফাজত এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেননি বলে জানান। মামুনুল হককে গতকাল গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আজ তাকে আদালতে হাজির করে রিমান্ড আবেদন করা হবে বলে ডিবি জানিয়েছে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, গত ২৬শে মার্চ থেকে ২৮শে মার্চ দেশব্যাপী তাণ্ডব সম্পর্কে তার কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে। এর পেছনে অন্য কোনো শক্তি ছিল কি-না এ বিষয়ে তথ্য উদ্‌ঘাটনের চেষ্টা করবেন গোয়েন্দারা। তাছাড়া তার ব্যক্তিগত জীবনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড সম্পর্কেও জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে।
মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র যুগ্ম কমিশনার মো. মাহবুব আলম মানবজমিনকে বলেন, শাপলা চত্বরের অবরোধ, নাশকতা থেকে শুরু করে সাম্প্রতিক সময়ে চালানো তাণ্ডব সম্পর্কে হেফাজত নেতাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এসব বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ অনেক তথ্য পাওয়া গেছে। অনেক বিষয় তারা অস্বীকার করছেন। এ বিষয়ে তাদের আরো জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।
গতকাল হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব ও খেলাফত মজলিসের সাধারণ সম্পাদক মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তার আগে শনিবার গ্রেপ্তার করা হয় হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগরের সভাপতি মোহাম্মদ জুনায়েদ আল হাবীবকে। ওই দিন দুপুরে গ্রেপ্তার করা হয় হেফাজতের কেন্দ্রীয় কমিটির সহকারী মহাসচিব মাওলানা জালাল উদ্দিন আহমেদকে। এর আগে, হেফাজতের ঢাকা মহানগরীর ভারপ্রাপ্ত আমির মাওলানা জুবায়ের আহমেদ, হেফাজতের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, হেফাজত নেতা শাখাওয়াত হোসেন রাজী, ফখরুল ইসলাম ও মঞ্জুরুল ইসলামসহ মোট আট জনকে গ্রেপ্তার করেছে ডিবি পুলিশ। তাদের প্রত্যেকের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা রয়েছে। মাওলানা মামুনুল হক ছাড়া তারা প্রত্যেকেই রিমান্ডে রয়েছেন। মামুনুল হককে আজ আদালতে হাজির করে রিমান্ড চাওয়া হবে। গতকাল মোহাম্মদ জুনায়েদ আল হাবীবকে সাতদিনের রিমান্ডে নিয়েছে ডিবি পুলিশ।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
পাঠকের মতামত
**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।
ফিরদাউস
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৭:৪৮

জামায়াত শিবির মওদুদী মতবাদ গোমরাহ পথভ্রষ্ট বিভ্রান্ত এজন্য ওরা পরাজিত হয়েছে । কারণ বাতিল পরাজিত হয় । শাইখুল হাদীস আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী আল্লামা মামুনুল হক সহ সকল কওমী ওলামায়ে কেরাম হক তাই তাদের বিজয় হবেই হবে ইনশাআল্লাহ ।

Sajib
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১০:১৬

দাগ থেকে যদি ভালো কিছু হয় তাহলে দাগই ভালো।

Hasanath Sheikh
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৪:৩৯

সরকার আগুন নিয়ে খেলছে,,লকডাউনের দোহাই দিয়ে হেফাজত ইসলামের কর্মসুচি ঠেকানোর নাটক দেশের জনগণ বুঝতে পারে,, একদিন না একদিন লকডাউন শেষ হবে সেই দিন সরকার বুঝতে পারবে ঠেলার নাম বাবাজী।

Jaker Ali
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ৩:৪৩

এদেশকে ধর্ম ব্যবসায়ীদের হাত থেকে বাচানোর জন্যে অতি দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হোক

azad
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ২:২৬

পবিত্র রমজানের আলেমদের কে এই ভাবে গ্রেফতার করা কোনো সভ্য সমাজের কাজ নয়। যারা কোনো অন্যায় কখনো জড়িত ছিলনা। অথচ প্রকাশে দিবা লোকে যারা রাইফেল স্টেনগান মতো হাতিয়ার নিয়ে খেলা করে তাদের বেপারে কোনো হস্তক্ষেপ নাই। বরং তাদের কে জামাই আদর করে আর কত দিন এই ধরণের ড্রামা দেখতে হবে জাতি কে! এবার নুতন কোনো গল্প হবে বি এন পি/জামাতকে বিলীন বানাতে হবে আর সরকার থাকবে হেরোইন! কারণ একটা কে ডাকতে আর একটা গল্প বানাতে হবে এইটাই তোমাদের চরিত্র বাংলাদেশের জনগণ বুজেগেছে কে খল নায়ক?

আকবর
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১২:৫৬

Bangladesher alemder ke jevabe rimande nia nirjaton korche tar ninda janai obilombe tader mukti chai ai nastik sorkarer podoteg chai mafia sorkar amader dorkar nai

Syed Hasan Imam
১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ১১:৩৪

সব রিম্যান্ডের মূলে বিএনপি-জামায়াত জোটকে জড়ানোর ফন্দি ! কিছুই করার নেই সরকারের,তারাতো নির্দেশমত কাজ করছে মাত্র ।

Md. shamsul Islam
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১২:২৬

Allah save them.

Md. shamsul Islam
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১২:২৬

Allah save them.

Mohammad Hoque
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১২:২১

During this holy month of Ramadan, only anti-Islam forces and Islamophobics can unleash havoc and tortures on the Islamic scholars. Imam Bokhari died in jail and most great Imams were tortured by the ruling oppressors. The arrest and torture of Bangladeshi Imams and Islamic orators are the return of Jahiliyya and dark ages of the Arab world.

বাহা উদ্দিন বাবলু
১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ১০:১২

তান্ডব চালালো হেলমেট বাহিনী আর সব দোষ এখন হেফাজতের।

Syed Hasan Imam
১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ৯:৩৫

সব রিম্যান্ডের মূলে বিএনপি-জামায়াত জোটকে জড়ানোর ফন্দি ! কিছুই করার নেই সরকারের,তারাতো নির্দেশমত কাজ করছে মাত্র ।

Kaliakair
১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ৮:৫৮

2013 to 2021...... It's too late!

Ashraful Alam
১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ৬:২২

সারা দেশে তান্ডব চালাচ্ছে আওয়ামী সংঘঠন আর দোষ হেফাজতের

morshed Bhuiyan
১৮ এপ্রিল ২০২১, রবিবার, ১:৫৩

তাণ্ডব হেফাজত করে নাই, হেফাজতকে ফাঁসানোর জন্য সরকার এর লোকেরা তান্ডব চালিয়েছে।

Nurun Nabi
১৯ এপ্রিল ২০২১, সোমবার, ১:২২

Allah, Please protect all of us. We are patriots from Bangladesh.

অন্যান্য খবর