× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৫ মে ২০২১, শনিবার, ২ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ
কলকাতা কথকতা

মার্চেই কলকাতা বিমানবন্দরে হাজার কোটি টাকার চার্টার্ড ফ্লাইট আর হেলিকপ্টার চলাচল

কলকাতা কথকতা

জয়ন্ত চক্রবর্তী, কলকাতা
(৩ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ২১, ২০২১, বুধবার, ১১:৩১ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট: ৮:২৭ অপরাহ্ন

নির্বাচন হয় জনগণের টাকায় আর জনগণের করের টাকায় মোচ্ছব চলছে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা ভোটকে কেন্দ্র করে। রাজনীতিকে কর্পোরেটতন্ত্রে পরিণত করার  গুরুতর অভিযোগ এনেছে সিপিএম। তারা একটি হিসাব দিয়ে দেখিয়েছে শুধু মার্চ মাসে ১৪০ বার দিল্লি থেকে চার্টার্ড ফ্লাইট এসেছে কলকাতায় আর হেলিকপ্টার উড়েছে। দিল্লি থেকে চার্টার্ড ফ্লাইট একবার আসা যাওয়ার খরচ ১০ লাখ টাকা, সঙ্গে ১৮ শতাংশ জিএসটি। হেলিকপ্টারের ভাড়া ঘণ্টায় ১ লাখ টাকা সঙ্গে ১৮ শতাংশ জিএসটি। অর্থাৎ এই হিসেবে শুধু মার্চেই হাজার কোটি টাকার চার্টার্ড ফ্লাইট আর হেলিকপ্টার উড়েছে ভোটের মরশুমে। সিপিএম-এর অভিযোগ, এই চার্টার্ড ফ্লাইট আর কপ্টার ভাড়ার ৯০ শতাংশ দায় বিজেপির। দিল্লি থেকে বারবার তাদের নেতারা এসেছেন চার্টার্ড ফ্লাইটে।
কপ্টার ভাড়া নিয়েছে  বিজেপি ও তৃণমূল প্রচারের জন্যে। অথচ দিল্লি থেকে সাধারণ ফ্লাইট চালু ছিল। কপ্টার বিশেষ নেতার যাতায়াতের সুবিধার জন্যে ব্যবহার করে অন্য নেতারা গাড়ি ব্যবহার করতে পারতেন। প্রার্থীদের নির্বাচনী ব্যায় কমিশন বেঁধে দিয়েছে ৩৮ লাখ টাকার সামান্য বেশি। এই টাকায় নির্বাচনী ব্যায় মিটিয়ে এই উড়ানের বিলাসিতা কোথা থেকে আসছে, তাই নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এই প্রশ্নও উঠেছে যে নেতাদের চার্টার্ড ফ্লাইট এবং হেলিকপ্টার ভ্রমণের ব্যায় মেটাচ্ছে কিছু কর্পোরেট সংস্থা।  এখন প্রশ্ন, মানুষের সেবার জন্যে কি তাহলে রাজনীতি কর্পোরেট হয়ে গেল?

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর