× প্রচ্ছদ অনলাইনপ্রথম পাতাশেষের পাতাখেলাবিনোদনএক্সক্লুসিভভারতবিশ্বজমিনবাংলারজমিনদেশ বিদেশশিক্ষাঙ্গনসাক্ষাতকাররকমারিপ্রবাসীদের কথামত-মতান্তরফেসবুক ডায়েরিবই থেকে নেয়া তথ্য প্রযুক্তি শরীর ও মন চলতে ফিরতে ষোলো আনা মন ভালো করা খবরকলকাতা কথকতাখোশ আমদেদ মাহে রমজানস্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী
ঢাকা, ১৪ মে ২০২১, শুক্রবার, ১ শওয়াল ১৪৪২ হিঃ

জেঅ্যান্ডজের টিকা আবারও ভ্যারিয়েন্টসহ করোনার বিরুদ্ধে কার্যকর প্রমাণিত

বিশ্বজমিন

মানবজমিন ডেস্ক
(৩ সপ্তাহ আগে) এপ্রিল ২২, ২০২১, বৃহস্পতিবার, ১০:০৪ পূর্বাহ্ন

নতুন এক পরীক্ষায় দেখা গেছে জনসন অ্যান্ড জনসন (জেঅ্যান্ডজে) আবিষ্কৃত করোনা ভাইরাসের টিকা কার্যকর। এমনকি ভাইরাসটির বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধেও তা কার্যকর। এজন্য এক পরীক্ষায় যাদেরকে এই টিকা দেয়া হয়েছিল ২৮ দিন পরে দেখা গেছে তাদেরকে এক ডোজের এই টিকা লক্ষণযুক্ত এবং লক্ষণ দেখা দেয়নি এমন সংক্রমণ থেকে সুরক্ষা দিয়েছে। একই সঙ্গে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ও মৃত্যু থেকে তাদেরকে সুরক্ষা দিয়েছে। বুধবার প্রকাশিত নতুন এক ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার ফলাফলে এ কথা বলা হয়েছে। এ খবর দিয়েছে অনলাইন দ্য হিল। এতে আরো বলা হয়েছে, জেঅ্যান্ডজের টিকা দেয়ার কমপক্ষে ১৪ দিন পরে মাঝারি থেকে মারাত্মক সঙ্কটজনক অবস্থার বিরুদ্ধে গড়ে শতকরা ৬৭ ভাগ সুরক্ষা দেয়। টিকা দেয়ার ২৮ দিন পরে শতকরা ৬৬ ভাগ মানুষের ক্ষেত্রে এই টিকা কার্যকর দেখা গেছে।
এমন তথ্য প্রকাশিত হয়েছে নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিনে। এতে আরো বলা হয়, করোনা ভাইরাসে ভয়াবহভাবে আক্রান্তদেরকে এই টিকা দেয়ার ১৪ দিন পরে তাদের মধ্যে শতকরা প্রায় ৭৭ ভাগের ক্ষেত্রে কার্যকর দেখা গেছে। আর ২৮ দিন পরে এই কার্যকারিতা দেখা  গেছে শতকরা ৮৫ ভাগ।
এর আগে জানুয়ারিতে জেঅ্যান্ডজে একটি প্রাথমিক পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেছিল। পরে নতুন করে চালানো পরীক্ষার ফল এবং ওই পরীক্ষার ফল একই রকম। যুক্তরাষ্ট্রের ফুড অ্যান্ড ড্রাগ এডমিনিস্ট্রেশন (এফডিএ) বেঁধে দেয়া সর্বনি¤œ স্তরের চেয়ে এই টিকা অনেক বেশি সুরক্ষা দেয়। তবে তা ফাইজার এবং মডার্নার টিকার কার্যকারিতার চেয়ে কম। জানুয়ারির পরীক্ষায় যে ফল পাওয়া গিয়েছিল, তার সঙ্গে নতুন পরীক্ষার ফল মিলে যাওয়ায় এটাই প্রমাণিত হয় যে, সময়ের সঙ্গে জেঅ্যান্ডজে টিকার সুরক্ষার মান কমে যায়নি। কোম্পানি বলেছে, তারা ১১ সপ্তাহের জন্য পরীক্ষায় প্রায় ৩০০০ স্বেচ্ছাসেবক এবং ১৫ সপ্তাহের জন্য ১০০০ স্বেচ্ছোসেবক ব্যবহার করেছে। তিনটি মহাদেশে জেঅ্যান্ডজে তাদের পরীক্ষা চালায়। এতে অংশ নেন মোট ৪৩,৭৮৩ জন স্বেচ্ছাসেবী। গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো এক ডোজের এই টিকা বি.১.৩৫১ ভ্যারিয়েন্টসহ দ্রুত বিস্তার করতে পারে এমন ভ্যারিয়েন্টের বিরুদ্ধেও কার্যকর দেখা গেছে। দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনা আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে শতকরা ৯৫ ভাগের ক্ষেত্রেই এই ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ দেখা গেছে। অন্যদিকে ব্রাজিলে মোট যে পরিমাণ মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন তার মধ্যে শতকরা ৬৯ ভাগ আক্রান্ত হয়েছেন পি২ ভ্যারিয়েন্ট দ্বারা। দক্ষিণ আফ্রিকায় জেঅ্যান্ডজের টিকা মাঝারি থেকে গুরুত্বর পর্যায়ে আক্রান্তদের ক্ষেত্রে শতকরা ৬৪ ভাগ কার্যকর বলে প্রমাণ পাওয়া গেছে। টিকা দেয়ার ২৮ দিন পরে মারাত্মক আক্রান্তদের ক্ষেত্রে শতকরা ৮২ ভাগ কার্যকর দেখা গেছে। ব্রাজিলেও এই টিকার কার্যকারিতা পরীক্ষা করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ওই হার যথাক্রমে ৬৮ ভাগ এবং ৮৮ ভাগ। তবে বিভিন্ন জাতি ও বয়সের ক্ষেত্রে এই সুরক্ষার মানে তারতম্য হতে পারে।

অবশ্যই দিতে হবে *
অবশ্যই দিতে হবে *
অন্যান্য খবর